শনিবার, ১৮ আগস্ট ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮, ০৩:৪৩:৫৬

গাভী পালন ঘুরিয়ে দিয়েছে খাদিজার ভাগ্যোর চাকা

গাভী পালন ঘুরিয়ে দিয়েছে খাদিজার  ভাগ্যোর চাকা

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি : এক সময় অর্ধহারে অনাহারে দিন কাটতো  ছেলে মেয়েদের নিয়ে কোনো বেলা খেতে পারতো  আবার কোনো বেলা উপবাস থাকতে হতো । কিন্তু প্রচলিত ঋণ ব্যবস্থার বাইরে সুদ মুক্ত ঋণে বরগুনার আমতলী উপজেলার প্রান্তিক  জনগোষ্ঠীর অনেকেরই ভাগ্যে বয়ে এনেছে পরিবর্তন। সংসারে এনেছ স্বা”ছন্দ্য, বদলে দিয়েছে জীবনমান।

হয়ে উঠেছে সাবলম্বী। সঠিক তদারকির মাধ্যমে ঋনের টাকার সঠিক ব্যবহারের নজরদারি এ পরিবর্তনে রেখেছে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা। ফলে এর সুফল ভোগ করছে ঋণ গ্রহীতাদের অনেকেই।তেমনই একজন উপজেলার আমতলী সদর ইউনিয়নের নাচনা পাড়া গ্রামের  মজিবুর রহমানের স্ত্রী  মোসাঃ খাদিজা বেগম। দিনমজুর  স্বামী মজিবর মিয়ার একার উপার্যনে ৩ মেয়ে নিয়ে কখোনো একবেলা কিংবা দুবেলা আবার কোনদিন উপোষ পেটে কেটে যেত দিন।

সারাদিনের কর্মক্লান্ত , দিনমজুর  স্বামীর মুখ তাকে বেশি ব্যাথিত করে তুলত। তাই স্বামীকে উর্পাজনের সহায়তা তাকে উদগ্রীব করে তোলে। কিছু একটা করার ইচ্ছা থাকলেও টাকার অভাবে কিছুই করা সম্ভব হয় না। কিছু টাকা জমিয়ে একটি বাছুর গরু কিনে শুর করেন লালন পালন। এক বছর পরে বিক্রি করে লাভের টাকা হাতে পেয়ে প্রত্যাশার তার বেড়ে যায়। ভাবনায় আসে যদি বেশ কয়েকটি বাছুর কিনে লালন-পালন করতে পারেন তবে তার লাভ হত অনেক। তার এ স্বপ্নে বাধ সাথে অর্থনৈতিক সীমাবদ্ধতা। প্রতিবেশির পরামর্শ আর স্বামীর উৎসাহে তিনি যোগাযোগ করেন মুসলিম এইডের স্থানীয় শাখায়।

সবকিছু যাচাই করে সংস্থাটি সুদমুক্ত ঋণ হিসেবে তাকে প্রথমে প্রদান করেন ১৫ হাজার টাকা । ঋণের টাকা দিয়ে খাদিজা  বেগম একটি গাভী ক্রয় করেন। গাভীর দুধ বিক্রয় করে পরিশোধ করেন ঋনের টাকা। খাদিজা বেগমের লেনদেন আর কঠোর পরিশ্রমে খুশী হয়ে পর্যায়ক্রমে তাকে ৩৬  হাজার  টাকা প্রদান করা হয়। ঋণ নিয়ে গাভী ক্রয় করে তৈরি করেন  ছোট খামার। আজ  খাদিজার গরুর খামার সকলে কাছে পরিচিত। প্রেরনার উৎস হিসেবে। মুসলিম এইডের ঋণ তার পরিবার ও এলাকার অনেক পরিবার উপকৃত হয়েছে। তাই মুসলিম এইডের মাইক্রোফাইন্যান্স প্রোগ্রামের উন্নতি কামনা করে খাদিজা  বেগম বলেন, এহন আর না খাইয়া থাহিনা। এহন টাহার লইগ্গা চিন্তা  করা লাগেনা।

মুসলিম এইড’র আমতলী শাখা ব্যবস্থাপক মুহাঃ আকবর আলী  বলেন, আমরা মধ্যবিত্ত ও নিম্ন-মধ্যবিত্ত মানুষের মাঝে সুদ মুক্ত ঋণ সহায়তা দিয়ে আত্মকর্মসংস্থান তৈরি এবং সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টির ও  বেকারত্ব দূরীকরণের মাধ্যমে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে সমৃদ্ধ করতে সাধারণ মানুষকে কর্মমূখী করে আত্মর্নিভরশীল করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যা”িছ। এরই ধারাবাহিকতার একটি অংশ খাদিজা  বেগম। আমাদের সামান্য সহযোগিতা আর খাদিজা  বেগমের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা তাকে সফল করে তুলছে।

উপজেলার  ৯শত জন চলমান সদস্যের মাঝে ১  কোটি ৫০ লক্ষ টাকা সুদ মুক্ত ঋণ বিতরণ করেছে মুসলিম এইড আমতলী শাখা । কৃষি ও ব্যবসা খাতকে প্রধান্য দেয়ার কারনে এলাকার অসংখ্য কৃষক ও ব্যবসায়ী ইতিমধ্যে ব্যাপক উপকৃত হয়েছেন। মুসলিম এইড সুদমুক্ত ঋণ এর পাশাপাশি দূর্যোগ  প্রস্তুতি, স্বাস্থ্য সম্মত পায়খানা, বাল্য বিবাহ, যৌতুক, ইভটিজিং ইত্যাদি সামাজিক সচেতনামূলক বিষয়ে প্রতি সপ্তাহে উঠান বৈঠক করে থাকে।

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?