বুধবার, ২৪ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ২৪ মে, ২০১৮, ১০:০৭:৪১

মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের কর্মসূচিতে না থাকায় গভীররাতে ছাত্রদের মারধর

মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের কর্মসূচিতে না থাকায় গভীররাতে ছাত্রদের মারধর

ঢাকা: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের ৩৫ শিক্ষার্থীকে গভীররাতে এলোপাতাড়ি মারধর করে হল ছাত্রলীগের নেতারা। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ হল, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদ কর্মসূচিতে না যাওয়ায় ও গেস্টরুমে দেরি করে উপস্থিত হওয়া।
বুধবার দিবাগত রাত ১১টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মাসুদ লিমনের অনুসারীরা এই ঘটনা ঘটায়।
জানা যায়, বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্ম সমন্বয় পরিষদের এক বিক্ষোভ সমাবেশ ছিল। সেখানে প্রথম বর্ষের কম সংখ্যক অনুসারী ওই কর্মসূচিতে হাজির হয়। এতে রাতে ১১টায় হলের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রলীগ কর্মীরা হল ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক লিমনের নির্দেশনা ছাড়াই হলের ২০৮ নম্বর কক্ষে গেস্টরুমে আহ্বান করে। ওই গেস্টরুমে প্রথম বর্ষের কয়েকজন দেরি করে উপস্থিত হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ছাত্রলীগ কর্মীরা উপস্থিত প্রায় ৩৫জনের সবাইকে এলোপাতাড়ি লাথি, কিল, ঘুষি মারতে থাকে। এতে নেতৃত্ব দেয় হল ছাত্রলীগের কর্মী মুনতাসির, স্মরণ, মাহিন, ইসতিয়াক, আল আমিন, সজীব, সাকিন। এদের নেতৃত্বে আরও কয়েকজন ছাত্রলীগকর্মী প্রথম বর্ষের ছাত্রদের থেমে থেমে দেড় ঘন্টা যাবৎ মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন।
এদিকে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা মারধরের কথা স্বীকার করেছে। মারধরকারী ইংরেজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের মুনতাসির ও পপুলেশন সাইয়েন্স বিভাগের স্মরণ; হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লিমন ও সাংবাদিকদের সামনে ছাত্রদের মারধর করার কথা স্বীকার করেন। এ বিষয়ে হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মাসুদ লিমন উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, রমজান মাসে গেস্টরুম করার নির্দেশ আমার ছিল না। ছাত্রদের মারধর করাও উচিত নয়। আমি এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিব।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?