মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ০৯:৫৯:৪৮

অন্ধ্র-ওডিশায় তিতলির আলিঙ্গন, বিপদ কেটে গেছে বাংলাদেশের

অন্ধ্র-ওডিশায় তিতলির আলিঙ্গন, বিপদ কেটে গেছে বাংলাদেশের

ঢাকা : তীব্র শক্তির ঘূর্ণিঝড় তিতলি ভারতের অন্ধ্র ও ওডিশা রাজ্যে আছড়ে পড়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোর ছয়টার দিকে রাজ্য দুটির উপকূলকে আলিঙ্গন করে এই ঝড়। আর তাতেই কেটে গেছে বাংলাদেশের বিপদ। খবর আনন্দবাজার, এনডিটিভি ও হিন্দুস্থান টাইমসের।

ভারতের আবহাওয়া অফিস ইন্ডিয়ান মেট্রোলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট (আইএমডি) এর পূর্বাভাস অনুসারে ঝড়টি এখন ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হবে। আর সে কারণে বাংলাদেশে এই ঝড়ের আঘাত হানার সম্ভাবনা কম।

তবে বাংলাদেশে আঘাত হানার সম্ভাবনা কম থাকলেও তিতলির প্রভাবে এখনো সাগর প্রবল উত্তাল। এছাড়া চট্টগ্রামসহ দেশের বেশিরভাগ এলাকায় বৃষ্টি হচ্ছে। কোথাও কোথাও আছে দমকা বাতাস। আগামীকাল শুক্রবার পর্যন্ত এ অবস্থা চলতে পারে।

আইএমডির তথ্য অনুসারে, বৃহস্পতিবার ভোর ছয়টার দিকে ঘূর্ণিঝড় তিতলি ওডিশার গোপালপুর অঞ্চল দিয়ে ওডিশা ও অন্ধ্র প্রদেশের উপকূলে আছড়ে পড়ে। প্রাথমিক তথ্য অনুসারে, ওড়িশার গোপালপুরে আছড়ে পড়ার সময় ঝড়ের গতি ছিল প্রতি ঘণ্টায় ১০২ কিলোমিটার। অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাকুলামে এই গতিবেগ ছিল ১৪০- ১৬০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা।

বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের খবরে বলা হয়েছে, ঘণ্টায় ১৪০ থেকে ১৫০ কিলোমিটার বেগে তিতলি বয়ে চলেছে। ওডিশার বিভিন্ন এলাকায় গাছ এবং বৈদ্যুতিক খুঁটি উপড়ে গেছে। বিভিন্ন অঞ্চল বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে রেল চলাচল করছে না। অতিবৃষ্টিতে বিভিন্ন এলাকার রাস্তায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভূমিধস হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

ঘূর্ণিঝড়ে প্রাণহানী এড়াতে উপকূলীয় বিভিন্ন জেলার প্রায় ৩ লাখ মানুষকে ইতোমধ্যে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়েছে প্রশাসন। অন্ধ্র প্রদেশের চার জেলায় শুক্রবার পর্যন্ত সব স্কুল কলেজ বন্ধ থাকছে। বিমান চলাচলও স্থগিত করা হয়েছে। এছাড়া কয়েকটি ট্রেনের চলাচল বন্ধ ও সমূসূচিতে সাময়িক পরিবর্তন আনা হয়েছে।

এদিকে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ঘূর্ণিঝড় সংক্রান্ত বুলেটিনে জানিয়েছে, হ্যারিকেনের তীব্রতাসম্পন্ন প্রবল ঘূর্ণিঝড় তিতলি আজ ভোরে ভারতের অন্ধ্র-ওডিশা উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করে। এটি কিছুটা উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে পরবর্তী ২/৩ ঘণ্টার মধ্যে উপকূল অতিক্রম সম্পন্ন করতে পারে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় তিতলির কেন্দ্রের ৭৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের সর্বোচ্চ একটানা গতিবেগ ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়োহাওয়ার আকারে ১৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও মোংলা ও পায়রা বন্দরের জন্য ৪ নাম্বার সতর্ক সংকেত জারি করা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সমুদ্রে অবস্থানরত মাছধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ অবস্থানে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুসারে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোনো কোনো জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া কোথাও কোথাও মাঝারি ভারি থেকে ভারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?