রবিবার, ১৬ ডিসেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৮, ০৭:১৭:৫৩

সিএন্ডএফ কর্মচারীকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৬

সিএন্ডএফ কর্মচারীকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৬

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোরের শার্শায় অর্থনৈতিক লেনদেনকে কেন্দ্র করে জাহিদুল ইসলাম জাহিদ (২৮) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শার্শার নাভারণ ইসলামপুর মাঠপাড়া এলাকায় । বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ইসলামপুর মাঠপাড়া গ্রামের একটি কলাবাগান থেকে বস্তাবন্ধী অবস্থায় মৃতদেহটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বেনাপোল সিএন্ডএফ কর্মচারীর। এবং বেনাপোলের পোড়াবাড়ী নারায়নপুর গ্রামের আব্দুর জব্বার তরফদারের ছেলে তিনি বেনাপোল সেজুতি এন্টারপ্রাইজের ম্যানেজার।

নিহতের স্বজনরা জানান, জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বিদেশ যাওয়ার জন্য ৪ লাখ টাকা দেয় ইসলামপুর মাঠপাড়া গ্রামের ঝড়ু দালালের স্ত্রী বিউটি খাতুনকে। পরে বিদেশ না পাঠিয়ে টাল-বাহনা শুরু করে। এ ঘটনায় সর্বশেষ বুধবার রাতে টাকা দেওয়ার কথা বলে বাসাবাড়ীতে ডেকে নেয় জাহিদকে। পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে বিউটি যশোর থেকে ৪জন ভাড়াটে কিলার এনে বাসায় সাউন্ডবক্সে গানবাজনা শুনতে থাকে।

পরে জাহিদকে বাথরুমে নিয়ে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে লাশটি বস্তাবন্ধী করে পাশের একটি কলাবাগানে ফেলে দেয়। জাহিদের বাড়ীর লোকজন অনেক খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে বিউটির বাসায় এসে জানতে চাইলে লাইট অফ করে দিয়ে বলে জাহিদ আসেনি।

ঘটনাটি সন্দেহ হলে শার্শা থানা পুলিশকে অবহিত কওে স্বজনরা। থানা পুলিশ এসে জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পারে তাকে খুন করা হয়েছে। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করেছে। এ খুনের ঘটনায় শার্শা থানা পুলিশ জড়িত থাকার অপরাধে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৬ জনকে আটক করেছে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ খুনের আলামত উদ্ধার করেছে।

শার্শা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এম মশিউর রহমান বলেন, প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি তারা ভাড়াতে কিলার দ্বারা সিএন্ডএফ কর্মচারী জাহিদুল ইসলাম জাহিদকে কুপিয়ে হত্যা করেছে।

আমরা এব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৬ জনকে আটক করেছি এবং মুল হোতাদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?