শনিবার, ২৫ মে ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১১ মে, ২০১৯, ০৬:৩৮:৪৭

ওসি মোয়াজ্জেমকে রংপুরে বদলির প্রতিবাদে জুতা প্রদর্শন করে মানববন্ধন

ওসি মোয়াজ্জেমকে রংপুরে বদলির প্রতিবাদে জুতা প্রদর্শন করে মানববন্ধন

ফেনী : ফেনীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে সোনাগাজী মডেল থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

পরে তাকে রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করা হলে এর প্রতিবাদে জুতা প্রদর্শন করে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেন শিক্ষার্থীরা।

শনিবার নগরীর লালবাগ মোড়ে ওসি মোয়াজ্জেমকে রংপুর রেঞ্জ থেকে অবিলম্বে প্রত্যাহার এবং স্থায়ী চাকরিচ্যুত করার দাবিতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আয়োজনে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনটির রংপুর বিভাগীয় কমিটির আহ্বায়ক রায়হান শরীফের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়ার পূণ্যভূমি রংপুরে নুসরাত হত্যার সাহায্যকারী মোয়াজ্জেমের ঠাই হবে না।

আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে রংপুর রেঞ্জ থেকে প্রত্যাহার, স্থায়ী চাকরিচ্যুত এবং হত্যার ঘটনায় জড়িত সবাইকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানান তারা।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে জুতা প্রদর্শন করে নারী নির্যাতন ও হত্যাকারীদের সহযোগী ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করা হয়। পাশাপাশি হত্যার ঘটনায় জড়িত সবাইকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়।

এতে রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, কারমাইকেল কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

  ভারত অনিষ্ট করবে বলে মনে করি না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  ১৪ বাংলাদেশীসহ ভূমধ্যসাগরে উদ্ধার ২৯০

  বেতন-বোনাসের দাবিতে রাজধানীতে পোশাকশ্রমিকদের বিক্ষোভ

  কুমুদিনী হাসপাতাল খেয়াঘাটে বাঁশের সাঁকো ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ

  কুমিল্লায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আসামি নিহত

  কাজ না করে বেতন, ১৬৭ চিকিৎসকের চাকরিচ্যুতির আশঙ্কা

  নরেন্দ্র মোদীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন

  রাষ্ট্র মেরামতের লক্ষ্যে প্রয়োজন রাজনৈতিক সংস্কার: সুজন

  রাষ্ট্র মেরামতের লক্ষ্যে প্রয়োজন রাজনৈতিক সংস্কার: সুজন

  রাজীবের মৃত্যুর ক্ষতিপূরণ মামলার রায় ২০ জুন

  ‘বাড়িতে গিয়ে রান্না করেন’, খাদ্য কর্তৃপক্ষকে হাইকোর্ট

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?