শুক্রবার, ১৯ জুলাই ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১০ জুলাই, ২০১৯, ০৮:২৫:৫৯

৬ মাসে রেলপথে ২০২ দুর্ঘটনা, নিহত ২০৯

৬ মাসে রেলপথে ২০২ দুর্ঘটনা, নিহত ২০৯

ঢাকা : রেলপথে গত ছয় মাসে ২০২ দুর্ঘটনায় ২০৯ নিহত ও ১৪৬ জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৪৭ নারী ও ২১ শিশু রয়েছে। চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্থানে এসব প্রাণঘাতী দুর্ঘটনা ঘটে।

গণমাধ্যমকর্মীদের সংগঠন শিপিং অ্যান্ড কমিউনিকেশন রিপোর্টার্স ফোরামের (এসসিআরএফ) জরিপ ও পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে এ পরিসংখ্যান তুলে ধরা হয়েছে।

বুধবার (১০ জুলাই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটি এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ২২টি বাংলা ও ইংরেজি জাতীয় দৈনিক, ১০টি আঞ্চলিক সংবাদপত্র এবং আটটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও সংবাদ সংস্থার তথ্য-উপাত্ত পর্যালোচনা করে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জানুয়ারিতে ৩৯টি দুর্ঘটনায় ১০ নারী ও চার শিশুসহ ৩৯ জন নিহত এবং আটজন আহত হয়েছে। ফেব্রুয়ারিতে ৪৬টি দুর্ঘটনায় নিহত ৪৩ ও আহত হয়েছে ২২ জন। নিহতের মধ্যে ১০ নারী ও চার শিশু রয়েছে। মার্চে ৩৫টি দুর্ঘটনায় ছয় নারী ও চার শিশুসহ ৩৮ জন নিহত ও সাতজন আহত হয়েছে।

এপ্রিলে দুর্ঘটনা ঘটেছে ২৩টি। এতে ২৬ জন নিহত ও ছয়জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে চার নারী ও তিন শিশু রয়েছে। মে মাসে ৩০টি দুর্ঘটনায় আট নারী ও তিন শিশুসহ ৩০ জন নিহত হয়েছে। এ সময়ে আহত হয়েছে তিনজন। জুনে দুর্ঘটনার সংখ্যা ২৯। এতে ৩৩ জন নিহত ও ১০০ জন আহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে নারী ও শিশুর সংখ্যা যথাক্রমে ৯ ও তিন।

সংগঠেনর সভাপতি আশীষ কুমার দে বলেন, গত ছয় মাসে সড়কের তুলনায় রেলপথে দুর্ঘটনার হার খুবই কম। পর্যবেক্ষণে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানির পেছনে পাঁচটি কারণ চিহ্নিত করা হয়েছে।

সেগুলো হলো- দূরপাল্লার ট্রেনে চালকদের অসতর্কতা, কিছু সংখ্যক রেল সেতুসহ অনেক স্থানে রেলপথ দীর্ঘ দিন সংস্কার না করা, রেল ক্রসিং (সড়ক ও রেলপথের সংযোগ স্থল) কর্মচারীর দায়িত্ব পালনে গাফলতি, মোবাইল ফোনে আলাপরত অবস্থায় রেল লাইন পারাপার এবং রেলপথ সংলগ্ন এলাকায় চলাচলের ক্ষেত্রে পথচারীদের সচেতনতার অভাব।

এই বিভাগের আরও খবর

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?