সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৯:৩৩:১৬

রাজবাড়ীতে আ.লীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা

রাজবাড়ীতে আ.লীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা

রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার মৌরাট ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ড সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী ল‌ীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী মণ্ডলকে (৪৫) পিটিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
নিহত শওকত আলী মৌরাট ইউনিয়নের বাগদুল গ্রামের নজির মণ্ডলের ছেলে।
মৌরাট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. কেসমত জানান, গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাগদুল বাজারে মুখে কাপড় বাঁধা একদল দুর্বৃত্ত মেম্বার শওকত আলীর ওপর হামলা করে পিটিয়ে আহত করে। এ সময় আতঙ্ক সৃষ্টি করতে বোমা বিস্ফোরণও ঘটানো হয়। পরে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা শওকতকে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসক। রাত আড়াইটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
মৌরাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান প্রামাণিক বলেন, মেম্বার শওকত আলী অত্যন্ত ভালো মানুষ ছিলেন। তার সঙ্গে কারও কোনো ঝামেলা ছিল না। কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা বলতে পারছি না।
পাংশা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান উল্লাহ জানান, কে বা কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তবে হত্যাকারীদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  সেই জি কে শামিমের প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ১০টি সরকারি চুক্তি বাতিল

  ঢাকা সিটি নির্বাচন: দক্ষিণের ওয়ার্ড ফলাফল দুইমাস স্থগিত

  নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষকসহ নিহত ২

  সিঙ্গাপুর থেকে দেশে এলেন প্রবাসী, করোনা সন্দেহে ‘একঘরে’ করল এলাকাবাসী

  সদ্য চীন থেকে আসা চীনা নাগরিক জ্বর নিয়ে ভর্তি রংপুর মেডিকেলে

  নির্বাচন নিয়ে পঞ্চ ‘নি’ তত্ত্ব প্রকাশ ইসি মাহবুবের

  জাতীয় দিবসে ইংরেজির পাশে বাংলা তারিখ ব্যবহারে রুল

  সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩

  চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

  সৌদি থেকে ফিরেছেন আরও ১৪৫ জন বাংলাদেশি

  ভালোবাসা দিবসে বিয়ে, বৌভাতের দিন সড়কে প্রাণ গেল বরের

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?