সোমবার, ২১ অক্টোবর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১১:০২:৪৭

মুজিব হত্যাকারী নূর চৌধুরীর স্ট্যাটাস প্রকাশে বাধা নেই: কানাডার আদালত

মুজিব হত্যাকারী নূর চৌধুরীর স্ট্যাটাস প্রকাশে বাধা নেই: কানাডার আদালত

ঢাকা : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনি নূর চৌধুরীর স্ট্যাটাস (তার বর্তমান অবস্থা) প্রকাশ করা সংক্রান্ত বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার জন্য বাংলাদেশের করা আবেদনের পক্ষে রায় দিয়েছেন কানাডার ফেডারেল কোর্ট।

গত মঙ্গলবার কানাডার আদালতের বিচারক ও’রেইলি এ রায় দেন।

রায়ে বিচারক বলেন, ‘নূর চৌধুরীর অবস্থান সংক্রান্ত তথ্যের গোপনীতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ এখন জুডিশিয়াল রিভিউ আবেদন করেছে। আমাদের বিবেচনায় বাংলাদেশের এ আবেদন মঞ্জুর হওয়া উচিত।’

কানাডার আদালতের এ রায়ের বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, ‘কানাডার আদালতে আমাদের পক্ষে রায় এসেছে। নূর চৌধুরীর স্ট্যাটাস প্রকাশের বাধা কেটেছে। এর আগেও আমরা কানাডার অভিবাসন মন্ত্রীর কাছে আবেদন করেছিলাম। আবারও আবেদন করে নূর চৌধুরীর স্ট্যাটাস প্রকাশ করার কথা জানাবো।’

প্রসঙ্গত, ১৯৯৬ সালে নূর চৌধুরী এবং তার স্ত্রী কানাডাতে পর্যটক হিসেবে প্রবেশের পর উদ্বাস্তু সুরক্ষার জন্য আবেদন করেন। ১৯৯৮ সালে দেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যা মামলায় অন্য আসামিদের সঙ্গে নূর চৌধুরীকে দোষী সাব্যস্ত করা হয় এবং আদালত তার মৃত্যুদণ্ড ঘোষণা করে।

২০০২ সালে কানাডার আদালত নূর চৌধুরী দম্পতির করা আবেদনটি প্রত্যাখ্যান করে। এর বিরুদ্ধে আপিল করলেও ২০০৬ সালে ঘোষিত রায়ে তারা হেরে যান।

২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর কানাডা থেকে যেন বহিষ্কৃত না হন এজন্য সে দেশের অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে প্রি-রিমোভাল রিস্ক অ্যাসেসমেন্ট আবেদন করে নূর চৌধুরী।

পরের বছর অর্থাৎ ২০১০ সাল থেকে বাংলাদেশ নিয়মিত এ বিষয়ে কানাডার সঙ্গে আলোচনা ও যোগাযোগ চালাচ্ছে। ২০১৮ সালে কানাডার অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে বাংলাদেশ একটি চিঠি দিয়ে নূর চৌধুরীর বিষয়ে তথ্য জানতে চাইলেও অ্যাটর্নি বাংলাদেশকে তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানান।

সবশেষ চলতি বছরের জুন মাসে কানাডার ফেডারেল কোর্টে বাংলাদেশ সরকার নূর চৌধুরীর তথ্য গোপনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করলে গত ২৫ মার্চ এ বিষয়ে শুনানি হয়। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার নূর চৌধুরীর স্ট্যাটাস প্রকাশের আবেদন মঞ্জুর করে রায় দিলো কানাডার আদালত।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?