সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ০৯ নভেম্বর, ২০১৯, ০৯:৩৪:১৯

বাংলাদেশ থেকে ৪৫৫ কিলোমিটার দূরে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’

বাংলাদেশ থেকে ৪৫৫ কিলোমিটার দূরে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’

ঢাকা: পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তত্সংলগ্ন পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর থেকে বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিম উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’। সেটি আজ শনিবার রাতে আঘাত হানতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়ের কারণে সাগর বিক্ষুব্ধ থাকায় মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলেছে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর।

উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলো ৭ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

চট্টগ্রাম বন্দরকে দেখাতে বলা হয়েছে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত। চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চর ৬ নম্বর বিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

আর কক্সবাজারে দেখাতে বলা হয়েছে ৪ নম্বর সতর্কতা সংকেত।

বর্তমানে ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ বাংলাদেশ উপকূলীয় অঞ্চল থেকে ৪৫৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের কারণে শুক্রবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে ছুটি বাতিল করে ১৩ জেলা প্রশাসকের (ডিসি) কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

যেসব জেলার সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে সেগুলো হলো- সাতক্ষীরা, বাগেরহাট, পটুয়াখালী, ভোলা, বরগুনা, পিরোজপুর, নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষ্মীপুর, চাঁদপুর, খুলনা, কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম।

এই বিভাগের আরও খবর

  ফুটন্ত তেলের কড়াইয়ে যুবককে দগ্ধ, মেম্বার গ্রেফতার

  প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে গেলেন যুবদল নেতা

  ফেনীতে কারের ধাক্কায় অনাগত যমজ না ফেরার দেশে

  আবারও ডেঙ্গুর আশংকা, রাজধানীর ১১ এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ

  বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক

  বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলেসহ ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

  বিটিআরসিকে ১ হাজার কোটি টাকা দিয়েছে গ্রামীণফোন

  বায়ু দুষণে দ্বিতীয় খারাপ অবস্থানে ঢাকা

  আমরা চাই সুষ্ঠু সুন্দর পরিবেশ বজায় থাকুক: সিইসি

  কুর্মিটোলা হাসপাতালের সামনে বেপরোয়া প্রাইভেটকার চাপায় আহত ১৪, গুরুতর ৬

  মানি লন্ডারিং মামলায় খালেদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?