মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১১:৪৬:৫৬

মিয়ানমার থেকে ১৭ জেলেকে ফেরত আনলো কোস্টগার্ড

মিয়ানমার থেকে ১৭ জেলেকে ফেরত আনলো কোস্টগার্ড

ঢাকা: ইঞ্জিন বিকল হয়ে মিয়ানমারের সমুদ্রসীমানায় ঢুকে পড়া মাছ ধরার নৌকা এমভি গোলতাজ-৪ বোর্ডসহ আটক ১৭ বাংলাদেশি জেলেকে  বাংলাদেশের কোস্টগার্ডের কাছে হস্তান্তর করেছে দেশটির নৌবাহিনী।

শুক্রবার (৬ ডিসেম্বর) রাত সোয়া ৯টার দিকে বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশ-মিয়ানমার জলসীমার শূন্য রেখায় কোস্টগার্ডের (সিজিএফ) তাজউদ্দিন জাহাজের কমান্ডারের হাতে ট্রলারসহ তাদের হস্তান্তর করা হয়।

বাংলাদেশের কোস্টগার্ড তাজউদ্দিন জাহাজের কমান্ডার মেজবাহ উদ্দীন এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, মাছ শিকারে গিয়ে ইঞ্জিন বিকল হয়ে মিয়ানমারের জলসীমায় ঢুকে পড়লে সে দেশের নৌবাহিনীর জাহাজ ১৭ জেলেকে উদ্ধার করে।

কমান্ডার মেজবাহ উদ্দিন বলেন, সরকারি প্রচেষ্টায় মিয়ানমার থেকে ফিশিং ট্রলারসহ ১৭ বাংলাদেশি জেলেকে ফেরত আনা সম্ভব হয়েছে। এই প্রথম সাগরের মাঝখানে দুই দেশের আলোচনায় কোস্টগার্ড জেলেদের ফেরত আনতে সক্ষম হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে ফেরত জেলেদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। জেলেরা নিরাপদে তাদের বাড়ি ফিরেছেন।

উদ্ধার জেলেদের মধ্যে ভোলার ১৩ জন, চট্টগ্রামের ২ জন, ঝালকাঠি ও মুন্সিগঞ্জ জেলার একজন করে রয়েছেন।

ফেরত জেলেরা হলেন- ভোলা কুলাকুপারের  মো. আল আমিন, একই জেলার চরকলিপার মো. জহিরুল ইসলাম, উত্তর মাদ্রিসের মো. জসীম, নুরুল ইসলাম, মো. নাছের, পশ্চিম এওয়াজপুরের মো. কামাল সওদাগর, নুরাবাদ এলাকার আবুল কালাম, নীল কমল এলাকার মো. বেলাল হোসেন, মো. মোতাহার, চুন্নাবাদ এলাকার জাকির হোসেন, কন্দকার বারী এলাকার আবুল কালাম, স্যার নুরুল আমিন ইউনিয়নের মো. ফারুক, মো. সেলিম, চট্রগ্রামের লাওর বিল এলাকার মো. শাহ আলম, মো. জসীম, মুন্সিগঞ্জ জেলার চাষি বারীগঞ্জ এলাকার আবু সৈয়দ এবং ঝালুকাটি জেলার শওকতগঞ্জ এলাকার মো. নুরুজ্জামান।

 

এই বিভাগের আরও খবর

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?