সোমবার, ২৫ মার্চ ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ১১ জানুয়ারী, ২০১৯, ১০:৩৩:৩৭

চতুর্থ শ্রেণির কর্মকর্তার উত্তরায় তিনটি পাঁচতলা বাড়ি!

চতুর্থ শ্রেণির কর্মকর্তার উত্তরায় তিনটি পাঁচতলা বাড়ি!

ঢাকা : স্বাস্থ্য অধিদফতরের মেডিকেল এডুকেশন শাখার হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মো. আবজাল হোসেনের বিপুল সম্পদের তথ্য পেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দেশে বিপুল সম্পদসহ বিদেশে বাড়ি বিষয়ে জানতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুদক। দুদক সূত্র এসব তথ্য জানা গেছে।

দুদক সূত্রে জানা যায়, আবজাল দম্পতির নামে রাজধানীর উত্তরায় ১৩ নম্বর সেক্টরের ১১ নম্বর রোডে তিনটি পাঁচতলা বাড়ি রয়েছে। এছাড়া ১৬ নম্বর রোডে পাঁচতলা বাড়ি, উত্তরার ১১ নম্বর রোডে একটি প্লট (প্লট নম্বর ৪৯) এবং ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ও ফরিদপুরের তাদের তাদের প্রচুর সম্পদ রয়েছে। দেশের বাইরে অস্ট্রেলিয়াতেও বাড়ি আছে আবজাল দম্পতির। দুদক সেই বাড়ির সন্ধান পেয়েছে।

সূত্রে আরও জানা যায়, এতো সম্পদের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবজাল হোসেনকে গত সপ্তাহে নোটিশ দেয় দুদক। দুদকে আসার সময় জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টের ফটোকপি, নিজ ও পরিবারের সদস্যদের নামে অর্জিত স্থাবর, অস্থাবর সম্পদের বিবরণ ও আয়কর রিটার্নের ফটোকপি সঙ্গে নিতে বলা হয়েছে। সেই অনুযায়ী আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

আফজালের স্ত্রী রুবিনা খানম স্বাস্থ্য অধিদফতরের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন শাখার স্টেনোগ্রাফার। দুদক তার বিরুদ্ধেও অনুসন্ধান করছে। একই সঙ্গে তাদের দু’জনের বিদেশ গমনে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  গণধর্ষণকারী দুই আসামি আবাসিক হোটেল থেকে আপত্তিকর অবস্থায় গ্রেফতার

  অভিনেত্রীর খোঁপায় মাদক, বললেন ব্যবহারের উদ্দেশে বাসায় নিচ্ছিলেন

  ফেনীতে গ্রাহকদের ৫০ কোটি টাকা নিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তা উধাও!

  নেই ডিগ্রি তবুও তিনি এমবিবিএস ডাক্তার

  হবিগঞ্জ-বেনাপোলে ৩ নারীকে গণধর্ষণ

  ভারতে পাঠানোর আশ্বাসে ৭ জন মিলে দুই তরুণীকে গণধর্ষণ

  জনতা ব্যাংক কেলেঙ্কারি : পরিচালকদের দুষলেন আবুল বারকাত

  কলেজছাত্রীকে ৭ মাস ধরে ধর্ষণ ৪ বাস কন্ডাক্টরের

  ভূমি ব্যবস্থাপনায় দুর্নীতি প্রতিরোধে দুদক কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ

  বগুড়ার সেই মতিনের অবৈধ সম্পদ জব্দের নির্দেশ

  ভাবির সঙ্গে পরকীয়া: ভাইকে হত্যার ৪ বছর পর ছোট ভাই গ্রেফতার

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?