বুধবার, ২৩ অক্টোবর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ৩০ জুন, ২০১৯, ১১:২৪:৪০

ফেল করিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেফতার

ফেল করিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেফতার

ঢাকা : রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় সিরাজুল ইসলাম নামে এক শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
সিরাজুল ইসলাম কামরাঙ্গীরচরে অবস্থিত একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক। রোববার বিকেলে কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীন ফকির বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানান।
তিনি জানান, পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে গত তিন মাস যাবৎ ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে আসছিলো শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম। সবশেষ গত সোমবার (২৪ জুন) ওই ছাত্রীর এক বান্ধবীর বাসায় নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে সে। বিষয়টি ওই ছাত্রীর কয়েকজন বান্ধবী জানতে পেরে তার মাকে জানায়। এরপর শনিবার (২৯ জুন) ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে রোববার সাভার নবীনগর এলাকা থেকে সিরাজুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়।
তিনি আরও জানান, গ্রেফতারের পর রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছিলো। শুনানি শেষে আদালতের বিচারক তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে সে। আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।
এছাড়া শারীরিক পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

এই বিভাগের আরও খবর

  মহিলা হোস্টেলে ঢুকে কলেজছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের নিপীড়ন!

  টেম্পুর হেলপার থেকে ৩০০০ কোটি টাকার মালিক মাদক সম্রাট মাসুদ

  ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা, মা ও সৎবাবা আটক

  ‘বিয়ে করবে বলে আমার মেয়েকে জাভেদ নষ্ট করেছে’

  বিদ্যালয়ের কক্ষে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করল দপ্তরি

  আনোয়ারায় ঘুষের টাকাসহ সার্ভেয়ার আটক

  প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে হোটেলে রাত কাটিয়ে হাতেনাতে ধরা কনস্টেবল

  ‘বান্ধবীর অ্যাকাউন্টে’ ঘুষের অর্ধকোটি টাকা, তোপের মুখে সওজ কর্মকতা

  ঘুষের টাকাসহ গ্রেফতার নৌ-পরিবহনের সার্ভেয়ার কারাগারে

  ধর্ষণে সন্তানের মা হলেন ১০ বছরের শিশু

  স্বাক্ষর জালিয়াতি: ৩৫ লাখ টাকার চেক তুলতে গিয়ে ২ পুলিশ আটক

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?