রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ০৩:৫৬:৫৯

‘অনৈতিক কাজ’ শেষে টাকা নিয়ে বাকবিতণ্ডায় মিরপুরে জোড়া খুন

‘অনৈতিক কাজ’ শেষে টাকা নিয়ে বাকবিতণ্ডায় মিরপুরে জোড়া খুন

ঢাকা : অনৈতিক কাজ শেষে ৩ হাজার টাকা দিতে গেল ৬ হাজার টাকার দাবি করেন নিহত দুই নারী। এসময় ৬ হাজার টাকা না দিলে মৃত্যুর ভয় দেখায় ওই দুই নারী। মৃত্যুর ভয়ে ঝামেলা এড়ানোর জন্য প্রথমে গৃহকর্মী সুমি (২০) ও এরপর বৃদ্ধা রহিমা বেগমকে (৬০) গলা টিপে হত্যা করে খুনিরা।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অতিরিক্ত কমিশনার মো. আবদুল বাতেন।

তিনি বলেন, গত ২ ডিসেম্বর রাতে মিরপুর সেকশন ২ এর একটি বাড়ির ৪র্থ তলায় ফ্ল্যাটে রহিমা বেগম (৬০) ও সুমি (২০) নামের দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে থানা পুলিশ। বুধবার থেকে এই জোড়া খুনের ঘটনাটির তদন্ত শুরু করে ডিবি পশ্চিম বিভাগ। বুধবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর সদরঘাট এলকা থেকে ডিবি পশ্চিম বিভাগের একটি টিম ইউসুফ (২৩) ও রমজান (২২)কে গ্রেফতার করে।

আবদুল বাতেন বলেন, ঘটনার রাতে ওই দুইজন অসামাজিক কাজ করতে মিরপুরের ওই ফ্ল্যাটে যায়। পরবর্তীতে টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। রাতে তাদের একজন বাসার একটি কক্ষে এবং আরেকজন বারান্দায় রাত্রিযাপন করে। সকালে উঠে টাকা নিয়ে আবার ঝামেলা হতে পারে এবং মারধোর করতে পারে এমন আশঙ্কায় ইউসুফ ও জুয়েল প্রথমে সুমিকে গলা টিপে হত্যা করে। এরপর তারা সুমি অজ্ঞান হয়ে গেছে জানিয়ে রহিমা বেগমকে তার কক্ষের বাইরে আসতে বলেন। রহিমা বেরিয়ে আসলে তাকেও গলা টিপে হত্যা করে তারা। পালিয়ে যাওয়ার সময় মোবাইল, ১৪ হাজার টাকা এবং সোনা ভেবে ইমিটেশনের ৩টি চেইন ও ১টি কানের দুল নিয়ে যায়।

ওই ঘটনায় রহিমা বেগমের মেয়ে বাদী হয়ে মিরপুর মডেল থানায় বুধবার একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই সদরঘাট এলাকা থেকে ইউসুফ ও তার সহযোগী রমজানকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।

গ্রেফতার আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে বরাত দিয়ে ডিবির এই কর্মকর্তা আরও বলেন, বাবুল নামে এক ব্যক্তি গত সোমবার (২ ডিসেম্বর) তাদের মিরপুরের ওই দুই নারীর (রহিমা ও সুমি) কাছে পাঠায়। অনৈতিক কাজের জন্য রহিমার দাবি ছিল ছয় হাজার টাকা। কিন্তু ওই সময় আসামিদের কাছে ছিল তিন হাজার টাকা। গ্রেফতার হওয়া দুই আসামির একজন (ইউসুফ) সারা রাত সুমির সঙ্গে এক রুমে ছিলেন। অন্যজন (রমজান) ছিলেন বারান্দায়।

এই বিভাগের আরও খবর

  ইসির অভ্যন্তরেই লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই: মাহাবুব তালুকদার

  সৌন্দর্য বর্ধনের নামে মসজিদ ভাঙ্গার সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি ওলামা লীগের

  টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

  কিশোরীকে গণধর্ষণের আগে জন্মদিনের কেক কেটে উল্লাস করে ওরা

  সীমান্তে হত্যায় বিএসএফের দোষ দেখছেন না বাংলাদেশের খাদ্যমন্ত্রী

  বিএসএফের দোষ দিয়ে লাভ নেই, দায় নেবে না সরকার: সাধন চন্দ্র মজুমদার

  বাংলাদেশেই হত্যাযজ্ঞ, অন্য ৫ দেশের সীমান্তে নতজানু ভারত

  স্কুল কেবিনেট নির্বাচন নেতৃত্ব দেয়ার স্পৃহা তৈরি করবে : শিক্ষামন্ত্রী

  যেমন থাকবে আজকের আবহাওয়া

  হঠাৎ নিজের মোবাইলে ছবি তুলতে শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী

  খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য বিশেষ আবেদন করা হবে: সেলিমা ইসলাম

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?