রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১০:৪২:০৪

ব্যক্তিত্বসম্পন্ন, সৎ ও সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের বিচারক নিয়োগ দিতে হবে

ব্যক্তিত্বসম্পন্ন, সৎ ও সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের বিচারক নিয়োগ দিতে হবে

ঢাকা : ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় বিচার বিভাগকে স্বাধীন করে তুলতে কার্যকর নীতিমালা প্রণয়নে উদ্যোগী হওয়া দরকার বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

তারা বলেন, একটি দেশের সুশাসন কতটুকু আছে, তা বোঝা যায় সে দেশের বিচার বিভাগের স্বাধীনতা দেখলে। আর বিচার বিভাগের স্বাধীনতা না থাকলে দেশে অন্যায়-অত্যাচার বেড়ে যায়। এজন্য বিচার বিভাগকে অবশ্যই নির্বাহী বিভাগ থেকে পৃথক হতে হবে। বিচারক নিয়োগের ক্ষেত্রে অবশ্যই ব্যক্তিত্বসম্পন্ন, মেধাসম্পন্ন, সৎ ও সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের প্রাধান্য দিতে হবে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে শনিবার হিউম্যানিটি ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ পৃথকীকরণের এক যুগ’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনায় বক্তারা এ কথা বলেন।

হিউম্যানিটি ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ শফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালেহ উদ্দিন আহমেদ এবং মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সাংবাদিক, কলামিস্ট ও সংবিধান বিশ্লেষক মিজানুর রহমান খান।

মুক্ত আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট আপিল বিভাগের বিচারপতি মো. আবদুল মতিন, সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন, সাবেক জেলা জজ মাসদার হোসেন, আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক শীপা হাফিজা, বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান।

সাবেক বিচারপতি মো. আবদুল মতিন বলেন, ন্যায়বিচার মানে মুনিবের আনুগত্য নয় বরং আইনের আনুগত্য।

ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, বিচার বিভাগ বরাবরই রাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণে ছিল এবং সবসময়ই সব বিরোধী দল বিচার বিভাগের স্বাধীনতার কথা বলে।

অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বলেন, বিচারের রায় পক্ষে এলে বিচার বিভাগ স্বাধীন, আর বিপক্ষে গেলেই পরাধীন- এটা সঠিক নয়। আলী ইমাম মজুমদার বলেন, বিচার বিভাগের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের শাসন বিভাগে সম্পৃক্ত করা উচিত না। মাসদার হোসেন বলেন, নানামুখী প্রতিক‚লতার মাঝে যে প্রত্যাশায় বিচার বিভাগ পৃথকীকরণে স্বাক্ষর করেছিলাম, তা হয়তো অনেকটাই কার্যকর হয়েছে; কিন্তু বিচার বিভাগ আর্থিকভাবে স্বাধীন না হলে এ পৃথকীকরণ অনেকটাই মূল্যহীন।

শফিকুর রহমান বলেন, বিচার বিভাগ পৃথকীকরণের এক যুগ ও মাসদার হোসেন মামলার ২০ বছর পূর্ণ হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের ওপর হামলা, একজন গুলিবিদ্ধ

  নেতাকর্মীরা বিন্দুমাত্র বিচলিত নয় : ইশরাক

  ইসির অভ্যন্তরেই লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই: মাহাবুব তালুকদার

  সৌন্দর্য বর্ধনের নামে মসজিদ ভাঙ্গার সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি ওলামা লীগের

  টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

  কিশোরীকে গণধর্ষণের আগে জন্মদিনের কেক কেটে উল্লাস করে ওরা

  সীমান্তে হত্যায় বিএসএফের দোষ দেখছেন না বাংলাদেশের খাদ্যমন্ত্রী

  বিএসএফের দোষ দিয়ে লাভ নেই, দায় নেবে না সরকার: সাধন চন্দ্র মজুমদার

  বাংলাদেশেই হত্যাযজ্ঞ, অন্য ৫ দেশের সীমান্তে নতজানু ভারত

  স্কুল কেবিনেট নির্বাচন নেতৃত্ব দেয়ার স্পৃহা তৈরি করবে : শিক্ষামন্ত্রী

  যেমন থাকবে আজকের আবহাওয়া

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?