শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ০৮:৩৬:৫৬

মালয়েশিয়ায় সাঁড়াশি অভিযানে ৫৫ বাংলাদেশি আটক

মালয়েশিয়ায় সাঁড়াশি অভিযানে ৫৫ বাংলাদেশি আটক

মালয়েশিয়ায় ৫৫ বাংলাদেশিসহ ৩৩৮ বিদেশি শ্রমিককে আটক করা হয়েছে। দেশটির সাইবারজায়া শহরে তল্লাশি চালিয়ে তাদের আটক করা হয় বলে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার অভিবাসন দফতরের মহাপরিচালক দাতুক সেরি মোস্তাফার আলী।

তিনি জানান, অবৈধ অভিবাসীদের ধরতে সেপ্টেম্বরের প্রথম থেকে ‘অপস মেগা ৩.০’ নামে সাঁড়াশি অভিযানের অংশ হিসেবে সাইবারজায়া শহরে তল্লাশি চালানো হয়।

এ সময় ২ হাজার ২৩০ জন বিদেশি শ্রমিকের কাগজপত্র যাচাই করা হয়েছে। সেখান থেকে ৩৩৮ জনের নথিপত্র বৈধ না হওয়ায় তাদের আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে ৫৫ জন বাংলাদেশি, ২০৮ জন ইন্দোনেশিয়ান, ২৮ জন বর্মী এবং ৪৭ জন নেপালি রয়েছেন।

মালয়েশিয়া অভিবাসন দফতরের মহাপরিচালক দাতুক সেরি মোস্তাফার আলীর ভাষ্য, আটককৃতদের বেশির ভাগই এক কোম্পানির পরিচয়ে এসে অন্য কোম্পানির কর্মী হিসেবে কাজ করছিলেন। এই জালিয়াতিতে অল্প কিছু কোম্পানিই জড়িত। আটককৃতদের বুকিত জালিল ইমিগ্রেশন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

মালয়েশিয়ায় বৈধ নথিপত্র ছাড়া অবস্থানরত বিদেশিদের ধরতে সাঁড়াশি অভিযান চালাচ্ছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। অবৈধ শ্রমিকদের স্বদেশে ফেরত যেতে বেঁধে দেয়া সময়সীমা আগস্টে শেষ হওয়ার পর এই সাঁড়াশি অভিযানে নামে অভিবাসন দফতর।

এর আগে 'সাধারণ ক্ষমা' ঘোষণা করে মালয়েশিয়ায় অবৈধ শ্রমিকদের আট হাজার টাকা পরিশোধের বিনিময়ে স্বদেশে ফেরত যাওয়ার সুযোগ দেয়া হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  দূতাবাসে ভাঙচুর: কুয়েত থেকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে ৩০০ বাংলাদেশিকে

  সৌদিতে ৩ বাংলাদেশির হাত-পা কেটে দেয়ার আদেশ

  মালয়েশিয়ায় ২ বাংলাদেশির হাত-পা-চোখ বাঁধা লাশ উদ্ধার

  দক্ষিণ আফ্রিকায় যেভাবে নিরাপদে থাকতে পারেন প্রবাসীরা

  যেসব কারণে প্রবাসে বাংলাদেশিরা মারা যাচ্ছেন

  বিদেশি অবৈধ কর্মীদের বৈধ করবে না মালয়েশিয়া

  মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা

  মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি শ্রমিককে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা

  আমিরাতে কুড়িয়ে পাওয়া কোটি টাকা ফিরিয়ে দিলেন বাংলাদেশি

  যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনে সাঈদা মুনা তাসনিমের যোগদান

  বাংলাদেশির অভিবাসন বাতিলে ভুল স্বীকার যুক্তরাজ্যের

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?