মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৫ মে, ২০১৮, ০৪:২৭:৫১

যে শিক্ষাগুলো মানুষ দেরিতে বোঝে

যে শিক্ষাগুলো মানুষ দেরিতে বোঝে

লাইফস্টাইল ডেস্ক : মানুষ তার বয়সের এক পর্যায়ে এসে আফসোস করে, অনুশোচনা করে। কিন্তু এর কারণ কি! একজন ব্যক্তির জীবনের সমস্ত সময় কেটে যাওয়ার পর সে যখন তা অতীতের ভুল সিদ্ধান্তগুলোর কথা ভাবে, ঠিক তখনি তার কন্ঠ এমন ভার হয়ে যায়। তাই বলে সবাই এমন ভুল করলে চলবে কি করে! আপনিও যাতে ভবিষ্যতে এমন অবস্থায় না পড়েন সে জন্যই আপনার করণীয়গুলো জেনে নিন-

১) সময়ের সঠিক ব্যবহার: সময় আপনার জীবনের মহান চিকিৎসক আবার জীবন নাশকারীও হতে পারে। এসব নির্ভর করে আপনার বর্তমান বিবেচনার উপর। হারিয়ে যাওয়া সময় আর কখনো ফিরে পাবেন না। তাই সময়ে কাজ সময়ে করার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

২) নিজের রুটিন তৈরী করুন: নিজের দৈনিক কাজের জন্য একটি সুন্দর রুটিন থাকা জরুরী। তাহলে আপনি নিজেই আপনার কাজ খুব সহজেই করে নিতে সক্ষম হএবন। এতে করে আপনার মুল্যবান সময় নষ্ট হওয়ার কোন সম্ভাবনা থাকবে না।

৩) ঝুঁকি নিন: জীবনের যে কোন সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই তা বাস্তবে পরিণত করার জন্য দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হয়। অনেক কঠিন মুহূর্তের সম্মুখীন হতে হয়। যে জীবনের পথ চলার এই ঝুঁকি নিতে পারবে না, তার পক্ষে সুন্দর জীবনের আশা করাও সম্ভব নয়।

৪) নিজের মনের কথা শুনুন: নিজের মন যা বলে তা মেনে কাজ করলেই মানুষের জীবনের পরিতৃপ্তি মেটে। পরিবার বা কাছের মানুষদের কথা রাখতে যেয়ে অনেক ক্ষেত্রেই মানুষ তার নিজের ইচ্ছার বা শখের বাইরে কাজ করে বসে। আর তা আজীবন তাকে তিলে তিলে কষ্ট দেয়।

৫) কাজকে ভালোবাসুন: আপনি যে কাজই করেন না কেন, আপনার কাজের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থাকা উচিৎ। কাজের প্রতি আপনার একাগ্রতা আপনার জীবনের ধারাবাহিকতাকে ধরে রাখে। এছাড়া আপনাকে দেখে অনেকেই সেই শিক্ষা নেবে।

৬) অভিযোগ করার প্রবণতা বন্ধ করুন: কোন বাচ্চা শিশুর মতো যে কোন কথাতেই অভিযোগ বা দোষ ধরানোর স্বভাব বন্ধ করুন। তা না হলে এটি আপনাকে অন্যের কাছে অনেক নিচু মানসিকতার পরিচয় দেবে।

৭) নীরবতা বজায় রাখা: আপনি অনেক সময় ভুল করে কারো সামইনে আপনার প্রতিক্রিয়া দেখান। এটি আদৌ আপনার উচিত নয়য়। কেউ ভুল করলে আপনার নীরবতা তাকে অনেক বড় শিক্ষা দিতে সক্ষম।

৮) সুন্দর জীবন উপভোগ করুন: আপনি আপনার জীবনের ভারসাম্য হার্যেম ফেললে সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে ব্যর্থ হবেন। তাই আপনার নিজের মতো করেই বেঁচে থাকার জন্য সবচেয়ে সঠিক পথটি বেছে নিন।

৯) হার না মানা: আপনাকে হয়তো অনেক সময় অনেক সংকটময় অবস্থার মধ্য দিয়ে যেতে হবে। কিন্তু আপনি যদি সে পরিস্থিতির কাছে হার মেনে বসে থাকেন তাহলে আপনি আপনার জীবনের কাছেও হার মানতে বাধ্য হবেন।

১০) টাকা সমাধান নয়: কেউ টাকা দিয়ে সুখ কিনতে পারে না। আমরা অনেক সময় সমৃদ্ধি আনতে প্রধান উপকরন হিসেবে আমাদের স্বপ্ন, সম্পর্ক, সময় এবং আরও অনেক কিছু দাবি করি। কিন্তু সে সমৃদ্ধি মানে এই নয় যে আপনি প্রকৃতভাবে সুখি হবেন।

১১) কঠোর পরিশ্রম: চেহারা দেখিয়েই কখনো কারো জীবনে সাফল্য আসে নি। বরং কঠোর পরিশ্রম আর সাধনার ফলে মানুষের জীবনের কাঙ্ক্ষিত সাফল্য আসে। তাই যত দ্রুত পারেন নিজের জীবনের লক্ষ্যে পৌঁছাতে কঠোর পরিশ্রম শুরু করুন।

 

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?