মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ১১:৫৫:৪৮

ত্বক পরিচর্যার কিছু পদ্ধতি

ত্বক পরিচর্যার কিছু পদ্ধতি

লাইফস্টাইল ডেস্ক : ত্বকের যত্নে আমরা অনেক কিছুই করে থাকি। কারণ সুস্থ সুন্দর ত্বক আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে অনেকাংশেই। কিন্তু মসৃণ, নিখুঁত ত্বক পেতে প্রত্যেক সপ্তাহে পার্লারে দৌড়োতে আর টাকা খরচ করে ফেশিয়াল করাতে কি আর ভালো লাগে?

আর এতে সময়ও লাগে অনেকটা। কাজেই সবচেয়ে ভালো হয় যদি এমন কোনো সহজ পদ্ধতি খুঁজে পাওয়া যায়, যা এনে দেবে দাগহীন উজ্জ্বলতা। তেমনই কিছু ত্বক পরিচর্যার পদ্ধতি উল্লেখ করা হল এখানে; যা করা সহজ, আবার দামেও সস্তা।

ব্রণ হলে: বাড়িতে টুথপেস্ট আছে নিশ্চয়? একটুখানি টুথপেস্ট নিয়ে ব্রণর ঠিক উপরে লাগিয়ে দিন। ব্যথা কমবে, ব্রণও শুকিয়ে যাবে। এমনকী দাগছোপও থাকবে না!

ঠোঁট ফাটলে: এক চিমটি চিনিতে কয়েক ফোঁটা দারুচিনির এসেনশিয়াল অয়েল মেশান। ঠোঁট এক্সফোলিয়েট করতে এই স্ক্রাবটি দারুণ কাজের। ফাঁটা ঠোঁটের সমস্যা তো কমবেই, ঠোঁট নরম, কোমল আর মসৃণ থাকবে সারা বছর।

মুখের রোমছিদ্র ছোট করতে: মুখের পোরস বড়ো হলে তার মধ্যে মেকআপের অবশেষ, তেল-ময়লা জমে ব্রণ হতে পারে৷ একটুকরো পরিষ্কার কাপড়ে বরফ মুড়ে মুখে কিছুক্ষণ কমপ্রেস নিন৷ পোরস অনেকটাই ছোট হয়ে যাবে৷

চোখের কোল ফোলা হলে: স্টিলের চামচ ফ্রিজে রেখে একদম ঠান্ডা করে চোখের কোলে চেপে ধরে থাকুন যতক্ষণ না চামচটা গরম হয়ে ওঠে। অন্তত চারটে থেকে ছ’টা চামচ ফ্রিজে আগে থেকেই রেখে দিন। চোখের কোলে একে একে চেপে ধরে কোল্ড কমপ্রেস নিলেই ফোলাভাব অনেক কমে যাবে।

হাত-পায়ের লোম তুলতে: ব্যস্ততার কারণে ওয়্যাক্সিং করতে যাওয়া হয়ে উঠছে না? অসুবিধা নেই, আপনার হাতে আধঘণ্টা সময় থাকলেই এর সমাধান করা সম্ভব। দু’ চা-চামচ চিনি, এক চা-চামচ মধু আর এক চা-চামচ পানি দিয়ে গরম করে একটা মিশ্রণ তৈরি করে নিন। মিশ্রণটা ঠান্ডা হলে লোমের উপর লাগিয়ে তার উপর পরিষ্কার পাতলা কাপড়ের ফালি বা ওয়্যাক্সিং স্ট্রিপ আটকে দিন। শুকিয়ে গেলে লোমের বৃদ্ধির উল্টোদিক বরাবর টান দিয়ে তুলে ফেলুন। অবাঞ্ছিত লোম দূর হয়ে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে কোমল আর মসৃণ। সূত্র: ফেমিনা

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?