বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০১৯, ০৪:৪০:২৯

পহেলা বৈশাখে খোঁপায় হয়ে উঠুন অনন্যা

পহেলা বৈশাখে খোঁপায় হয়ে উঠুন অনন্যা

লাইফস্টাইল ডেস্ক : বর্ষ বরণের নানা আয়োজনের মধ্যে অন্যতম হলো নারীদের সাজ। এরজন্য নারীরা নিজেদের প্রস্তুত করেন কয়েকদিন আগে থেকেই। কিন্তু শুধু কি সাজলেই হবে, চুল বাধতে হবে না? এদিন নিজেকে আকর্ষণীয় দেখাতে শিখে নিতে পারেন দুটি খোপা বাধার নিয়ম।

এই খোপাতে হয়ে উঠুন অনন্যা-

কার্ল করা বুফোঁ
চুড়ো করে বাঁধা এই খোঁপাটি দেখতে দারুণ সুন্দর, সেই সঙ্গে একটু রেট্রো স্টাইলের, অথচ যে কোনও পোশাকের সঙ্গে মানানসই। পয়লা বৈশাখের সকালে আপনার চুল বেঁধে নিন এই স্টাইলে।

কীভাবে বাঁধবেন:
ভল্যুমনাইজ়িং শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে চুল ধুয়ে নিন প্রথমে। মাথার মাঝখানে বেশ খানিকটা মুস লাগানো দরকার। কারণ বুফোঁর জন্য ক্রাউনের কাছে বাড়তি ভলিউম লাগবে। তার পর কার্ল করতে হবে।
ব্লো ড্রাই করে নিন। চুল কয়েকটা ভাগে ভাগ করে নেওয়া দরকার। কার্লিং ওয়্যান্ড ব্যবহার করে প্রতিটি সেকশন কার্ল করে নিতে হবে।

ক্রাউনের একটু পিছন দিকে বুফোঁ সেট করুন কয়েকটা ববি পিন লাগিয়ে। এর ফলে উপরের দিকের চুলে বেশ খানিকটা ‘ফুলনেস’ আসবে। কার্ল করা চুল ফোল্ড করে খোঁপা বাঁধুন পিছনে, ববি পিন দিয়ে আটকে দিন।
ক্রাউন এরিয়া থেকে চুল নিয়ে পাশে সিঁথে করুন, পিন দিয়ে আটকে নিন। সবার শেষে হালকা স্টাইলিং স্প্রে ব্যবহার করুন যাতে কার্লগুলো বোঝা যায়।

টেক্সচারড খোঁপা
খোঁপা, বিশেষ করে এলোমেলা খোঁপা কখনওই আউট অফ ফ্যাশন হয় না। পয়লা বৈশাখের সন্ধেয় আপনিও বেঁধে ফেলতে পারেন এমনই একটি খোঁপা।

কীভাবে বাঁধবেন চুল:
আগের রাতে শ্যাম্পু করুন, কন্ডিশনার দেবেন না। চুল আঁচড়ে লেংথটা কার্ল করবেন, ক্রাউনের কাছে কিছুই করার দরকার নেই।

ক্রাউনের ঠিক পিছনের চুলে একটা হেয়ার ডোনাট লাগান। এটা যেন স্ক্রাঞ্চির মতো আটকানো হয়। লম্বা চুল দিয়ে এই ডোনাটটিকে ঢেকে তার চারপাশে সুন্দরভাবে আটকে দিন ববি পিন দিয়ে।

হোল্ডিং স্প্রে লাগান
ক্রাউনের কাছে চুল একদিকে সিঁথি করে নিন। স্ট্রেটনিং আয়রন দিয়ে বাঁ দিকের সিঁথির পাশের চুল সোজা করে নিন। একবার পিছনে নিয়ে গিয়ে সামনে ছেড়ে দিন, তাতে চুল অল্প ফুলে থাকবে। কানের পাশে সেটিং পিন

দিয়ে চুল আটকে নিন
ডানদিকের চুলের সামান্য অংশ নিয়ে একটি কার্লিং ওয়্যান্ডে জড়িয়ে চুল কার্ল করে নিন। সব শেষে ব্যবহার করুন স্টাইলিং স্প্রে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?