বুধবার, ২৩ অক্টোবর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০২:২৮:০৬

বয়সের ঘড়ির কাঁটা আটকে দিন চেহারায়

বয়সের ঘড়ির কাঁটা আটকে দিন চেহারায়

লাইফস্টাইল ডেস্ক : চল্লিশ পার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মুখে বয়সের ছাপ পড়া শুরু হয়ে যায়। যে মসৃণ ত্বক, যে উজ্জ্বল চোখ আয়নায় দেখে আপনি অভ্যস্ত ছিলেন, তা ক্রমশ বিবর্ণ আর নিষ্প্রভ হতে শুরু করে। সেটা অনেকেরই মেনে নিতে অসুবিধে হয়, আর হওয়াটাই স্বাভাবিক! কিন্তু বয়স বাড়বেই, এই সত্যটাকে মেনে নিয়েও সুন্দর থাকা যায়। বয়সের ঘড়ির কাঁটা চেহারায় আটকে দিতে পারেন। তার জন্য রয়েছে কিছু উপায়-

সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন
মুখের ত্বকে বয়সের অগ্রগতি রুখে দেওয়ার প্রথম ধাপ হল রোদ থেকে সুরক্ষা। একটা ভালো, ব্রড স্পেকট্রাম অ্যান্টি এজিং সানস্ক্রিন ক্রিম বা লোশন ব্যবহার করতে শুরু করুন আজ থেকেই। সঙ্গে নিত্যব্যবহার্য ময়শ্চারাইজ়ার বা ক্রিমেও সান প্রোটেকটিং ফ্যাক্টর (এসপিএফ) থাকা খুব জরুরি।

মেকআপের আগে প্রাইমার লাগান
বয়সের ছাপ পড়তে শুরু করেছে যে সব ত্বকে, তাতে মেকআপ করার আগে প্রাইমার লাগিয়ে নেওয়া খুব দরকার। প্রাইমার ত্বক একটু হলেও মসৃণ করে তোলে, বলিরেখা আর সূক্ষ্মরেখার প্রকোপ অনেকটাই কমে যায়, মেকআপের বেসও হয় টেকসই।

ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন বুঝেশুনে
এমন ফাউন্ডেশন কিনুন যা দীর্ঘস্থায়ী কভারেজ দেয় আর ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলে। ফাউন্ডেশনেও সান প্রোটেকশন আর অ্যান্টি এজিং উপাদান থাকলে খুব ভালো হয়।

গাঢ় রঙের লিপস্টিক পরুন
ম্যাটের বদলে বেছে নিন গ্লসি বা সেমি গ্লসি ফরমুলার লিপস্টিক। লাল, বেরি রং, ওয়াইন, চেরি লাল বয়স্ক মুখে খুব সুন্দর মানায়। বিশেষ করে উজ্জ্বল রঙের লিপস্টিক পরলে আপনার দাঁতের সারি অনেক বেশি সাদা আর উজ্জ্বল দেখায়।

অ্যান্টি এজিং ক্রিম মাখুন নিয়ম করে
পছন্দসই ব্র্যান্ডের অ্যান্টি এজিং ক্রিম কিনতে পারেন, আবার নিজেই নিজের অ্যান্টি এজিং ক্রিম বানিয়েও নিতে পারেন। নিজে বানাতে হলে আধ কাপ জল নিন। তাতে একটা গ্রিন টি ব্যাগ 15 মিনিট ডুবিয়ে রাখুন। এর পর টি ব্যাগ তুলে ফেলুন। কাপের জলে চার টেবিলচামচ অ্যালো ভেরা জেল দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ ধুয়ে নিয়ে অ্যালো ভেরা আর গ্রিন টি-র মিশ্রণটা মুখে হালকা হাতে ভালোভাবে মাসাজ করুন। চোখে পড়ার মতো তফাত আসবে ত্বকে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?