শুক্রবার, ১০ জুলাই ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ২৫ মে, ২০২০, ০২:০২:৪৩

সঙ্গিনী বয়সে বড় হলে যা করবেন

সঙ্গিনী বয়সে বড় হলে যা করবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক: স্বামীর থেকে স্ত্রী বয়সে- কথায় আছে- প্রেমে মজিলে মন, কিবা মুচি কি-বা ডোম! মানে প্রেম মানুষকে অন্ধ করে দেয়। কেউ যখন প্রেমে পড়ে তখন সে চেহারা, গায়ের রং, জাত, এমনকি বয়সের ব্যবধান গ্রাহ্য করে না। এ জন্যেই কুরূপা নারীর জোটে রূপবান বর, হয় দুটি আলাদা ধর্মের মানুষের বিয়ে, গড়ে ওঠে অসম বয়সের দুটি মানুষের মধ্যে মনের মিলন। সম্পর্ক কখনো বয়স হিসেব করে গড়ে ওঠে না। সম বয়সী বা বয়সে বড় যে কারো সঙ্গেই হতে পারে সম্পর্ক। এক্ষেত্রে মনের মিলই প্রাধান্য পায়। তবে সেই প্রেম টিকিয়ে রাখাটাই সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ। আপনার প্রেমিকা যদি বয়সে বড় হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে মাথায় রাখতে হবে কিছু বিষয়।

১. প্রেমিকার সঙ্গে গল্প বা আড্ডার ছলে কখনই অপছন্দের কিছু বলে ফেলবেন না। বিশেষ করে কম বয়সের মেয়েদের নিয়ে। এ থেকে তার মনে হতে পারে আপনি ভালো নেই।

২. পেশাগত দিক থেকে তিনি বেশি বড় হওয়ায় উচু পোস্টে কাজ করতে পারেন। তা নিয়ে হীনমন্যতায় ভুগবেন না।

৩. বয়সে বড় হলেই যে সম্পর্কের রাশ তার হাতে থাকবে এমনটা নয়। কখনো না কখনো বিপরীতে থাকা মানুষটিরও ইচ্ছে হয় আবদার করার, সেই দিকে নজর রাখুন।

৪. দুজনের মধ্যে বয়সের পার্থক্য কত তা হিসাব করা বন্ধ করুন। এসব ভুলেই সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। তবেই সেখানে নিজেদের মধ্যে স্বাভাবিকত্ব বজায় থাকবে।

৫. অনেক সময় এই ধরনের সম্পর্কগুলোকে অনেকেই মেনে নিতে পারেন না। ফলে তাকে কেউ ছোট করতে পারে, এমন কারোর সামনে না নিয়ে যাওয়াই ভালো।

৬. বয়সের ফারাক যতটাই হোক না কেন, তাকে দুষ্টমি করে হলেও আপু বা অন্য কিছু বলে সম্বোধন না করাই ভালো। এতে আর পাঁচজনের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়া হয় যে আপনাদের মধ্যে বয়সের ফারাক রয়েছে। যা সম্পর্কের জন্য মোটেও মঙ্গলের নয়।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপির নেতারা আইন না বুঝেই মন্তব্য করে আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যে আপনি কি একমত?