মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৮, ১০:১১:৪১

দিনে ৫ হাজার মুখ চিহ্নিত করতে পারে মানুষ!

দিনে ৫ হাজার মুখ চিহ্নিত করতে পারে মানুষ!

ঢাকা : প্রতি ২৪ ঘণ্টায় মানুষ গড়ে ৫ হাজার চেহারা চিহ্নিত করতে পারে। সম্প্রতি এক গবেষণায় এমন তথ্য জানা গেছে। গবেষকেরা বলছেন, এ সংক্রান্ত গবেষণা প্রথমবারের মতো করা হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব ইয়র্কের বিজ্ঞানীরা আজ বুধবার গবেষণাপত্রটি প্রকাশ করেছেন। বলা হচ্ছে, প্রতিদিন গড়ে পাঁচ হাজার মুখচ্ছবি মনে রাখতে পারে মানুষ। যদিও একজন মানুষ বেশির ভাগ সময় শতাধিক মানুষের ছোট গোষ্ঠীর মধ্যে বা একা থাকে, কিন্তু গত কয়েক শতাব্দীতে মানুষের চেহারা মনে রাখার বা চিহ্নিত করার ক্ষমতা উল্লেখযোগ্য হারে বদলে গেছে।

ইউনিভার্সিটি অব ইয়র্কের বিজ্ঞানীরা বলছেন, চেহারা চিহ্নিত করার মানুষের যে ক্ষমতা, তা হাজার হাজার চেহারা থেকে কিছু স্মৃতি ধরে রাখতে সাহায্য করে। সামাজিক পরিবেশের কারণে প্রতিদিন একজন ব্যক্তির সঙ্গে অসংখ্য মানুষের মিথস্ক্রিয়া হয়। এ ছাড়া বর্তমানে স্মার্টফোন ও টেলিভিশনেও অসংখ্য মানুষের মুখ দেখা যায়।

ইউনিভার্সিটি অব ইয়র্কের মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ও প্রধান বিজ্ঞানী রব জেনকিনস বলেন, ‘প্রাত্যহিক জীবনে চেহারা চিহ্নিত করে বন্ধু, সহকর্মী ও সেলিব্রিটিদের আমরা চিনতে পারি। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে কত সংখ্যক চেহারা আমরা চিনতে পারি, তা এত দিন জানা সম্ভব হয়নি। এখন আমরা জানতে পেরেছি, একজন ব্যক্তি গড়ে ২৪ ঘণ্টায় ৫ হাজার চেহারা চিনতে পারে।’

গবেষকেরা বলছেন, এই সংখ্যা বিশ্বাসযোগ্য। গবেষণায় অংশ নেয়া ব্যক্তিদের বলা হয়েছিল, তারা যতজনের চেহারা চিনতে পারেন, তাদের নাম লেখার জন্য। এসব স্বেচ্ছাসেবীদের হাজার হাজার মানুষের মুখের ছবি দেখানো হয়েছিল। গবেষকেরা দেখতে পান, একেকজন গড়ে ১ থেকে ১০ হাজার চেহারা চিনতে পারছে।

রব জেনকিনস বলেন, মনোবিজ্ঞানের গবেষণা অপরিচিত ও পরিচিত চেহারা চিহ্নিতকরণের মধ্যকার পার্থক্য আবিষ্কৃত হয়েছে। অপরিচিত চেহারা চিহ্নিত করায় প্রায়ই ভুল হয়। পরিচিত চেহারা বেশ বিশ্বাসযোগ্যভাবে চিহ্নিত করে মানুষ। তবে এটি ঠিক কোন প্রক্রিয়ায় কাজ করে, তা এখনো জানা যায়নি।’

গবেষকদের দাবি, সাম্প্রতিক গবেষণায় পাওয়া ফলাফল চেহারা চিহ্নিতকরণ সফটওয়্যারকে নিখুঁত করতে সাহায্য করতে পারে। বর্তমানে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন বিমানবন্দরে এই সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়। এ ছাড়া অপরাধী শনাক্ত করার জন্যও এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?