রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯, ০৩:৫২:৩৭

২০২০ সালের আদর্শ ল্যাপটপ – কোনটি কিনবেন ?

২০২০ সালের আদর্শ ল্যাপটপ – কোনটি কিনবেন ?

ঢাকা : ল্যাপটপ এখন সবার জন্য একটি প্রয়োজনীয় ডিভাইস । ছাত্র থেকে শুরু করে প্রোফেসনাল সবার কাছে ডেক্সটপের পরিবর্তে ল্যাপটপ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কারণ এর বহনযোগ্যতা, কম ওজন এবং আয়তন, ব্যাটারিরর সাপোর্ট সবকিছু মিলিয়ে ডেস্কটপ এখন বিলীন প্রায়। এছাড়া প্রতীটি ল্যাপটপে আছে ওয়াইফাই যার সাহায্যে মুহূর্তে ইন্টারনেটের সাথে কানেক্ট করা যায়। তবে প্রযুক্তির দ্রুতগতির পরিবর্তনের সাথে সঠিক ল্যাপটপটি কেনা প্রয়োজন। তা না হলে কিছু দিনের ভিতর আপনার ল্যাপটপটি নতুন যূগের সাথে তাল মেলাতে পারবে না আরে আপনাকে অচিরেই তা পরিবর্তন করতে হবে। ২০১৯ সাল প্রায় শেষ কাজেই ২০২০ সালের কথা চিন্তা করে আসুন কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জেনে নেই।

১। কোন প্রসেসর কিনবেনঃ প্রসেসর ল্যাপটপের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। প্রসেসরের উপর নির্ভর করে ল্যাপটপের গতি। আপনার বাজেট অনুযায়ী প্রসেসর নিধারন করুন। যদি সাধারণ কাজের জন্য হয় এবং বাজেট কম থাকে তবে কোর আই-৫ এর যে কোণ জেনারেশন কিনুন। পারতপজ্ঞে কোর কোর আই-৩ কিনবেন না কারণ এটা ধীর গতি সম্পন্ন। আর যদি গেমার হন বা ডিজাইনার হন তবে সর্বনিম্ন কোর আই-৭ এর সর্বশেষ জেনারেশন কিনবেন।

২। হার্ডডিস্ক নাকি এসএসডিঃ এসএসডি কয়েকগুন দ্রুত চলে বিধায় ২০২০ সালে জন্য অবশই এটি সিলেক্ট করা উচিত। এসএসডি ল্যাপটপে অপারেটিং সিস্টেম এবং অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশান মুহূর্তেই লোড হয় এবং দ্রুতগতির কর্মক্ষমতা প্রদান করে। তবে গেমারদের স্টোরেজ বেশি লাগে এজন্য হাইব্রিড স্টোরেজ ল্যাপটপ সিলেক্ট করা উচিত। হাইব্রিড ল্যাপটপে SSD + HDD দুটোই থাকে। উল্লখ্য যে ল্যাপটপের হার্ডডিস্ক পরিবর্তন করে এসএসডি করা যায়।

৩। ১৪” নাকি ১৫” স্ক্রীনঃ ল্যাপটপের জন্য আদর্শ হল ১৪-ইঞ্চি স্ক্রীন। ফুল এইচডি (Full HD) দেখে কিনুন অর্থাৎ ১০৮০পি রেজোলিউশান। তা হলে গেম থেকে শুরু করে ভিডিও এডিটিং সব ধরনের কাজ সহজেই করতে পারবেন। উল্লখ্য যে ২০১৯ সালের বেশির ভাগ ল্যাপটপ ফুল এইচডি না অর্থাৎ ৭২০পি হয়। আর কেনার সময় প্রসেসর এবং অন্যান্য বিষয় আমরা যত বিবেচনা করই স্ক্রীনের ক্ষেত্রে করা হয় না। আর ল্যাপটপ মনিটর আপগ্রেডেবল নয় বিধায় শুরুতেই চিন্তা করে সঠিক রেজোলিউশানের ল্যাপটপ কেনা উচিত। তবে ১৫” ল্যাপটপ স্ক্রীন কিছুটা বড় বিধায় অনেকে তা পছন্দ করে থাকেন।

৪। রেমঃ সর্বনিম্ন ৮ জিবি কিনুন। যদিও রেম আপগ্রেডেবল কিন্তু নির্মাতা কোম্পানি সাথে যে রেম দেয় তা খুব ভাল কাজ করে।

৫। গ্রাফিক্স কার্ডঃ সাধারণ কাজের জন্য শেয়ারড কার্ড চলবে। কিন্তু গেম বা ভিডিও এডিটিং এর জন্য অবশই ৪জিবি ডেডিকেটেড ভিডিও কার্ড সিলেক্ট করুন আর বেশি হলে ভাল।

৬। ব্র্যান্ড ভ্যালু- কোণ ব্রান্ডটি কিনবেনঃ বাংলাদেশে অনেক পপুলার ব্রান্ডের ল্যাপটপ পাওয়া যায়। যেকোন ভাল ব্রান্ডের ল্যাপটপ সিলেক্ট করুন। তবে কেনার আগে উপরোক্ত টিপসগুলো মেনে চলুন তা হলে আপনি একটি ল্যাপটপ থেকে ৪/৫ বছর দ্রুতগতির সার্ভিস পাবেন।

৭। আরও কিছু টিপসঃ ল্যাপটপটি বেশি গরম হয় কিনা জেনে নিন। জানতে বিভিন্ন রিভিউ পড়ুন। চার্জারের পিনটি যেন মোটা পিনের হয় কারণ মোটা পিনে সমস্যা কম হয়। ওয়ারেন্টি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন। আর ওয়ারেন্টিযুক্ত ল্যাপটপ কিনুন এতে করে ভবিষ্যতে সমস্যা হলে প্রয়োজনীয় সাপোর্ট পেতে পারবেন। তবে শুধু সাপোর্ট সার্ভিস দেখে কিনবেন না সাথে হার্ডওয়্যার সার্ভিস বা ওয়ারেন্টি থাকলে খুব ভাল। কমমূল্যের কোন অফার দেখে হুটহাট করে ল্যাপটপ কিনতে যাবেন না। ভালো করে যাচাই বাচাই করে তারপরই সিদ্ধান্ত নিন। – বিডিস্টল

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?