বৃহস্পতিবার, ২৩ নভেম্বর ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৭, ০৭:১৮:৫৫

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া: অস্ত্র মহড়া

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া: অস্ত্র মহড়া

ইভান চৌধুরী, বেরোবি প্রতিনিধি : হলের ডাইনিংয়ে খাবার নেয়াকে কেন্দ্র করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় গ্রুপের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসে প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্রসহ মহড়া দেয়। এসময় কোন হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও বঙ্গবন্ধু হলের নিচ তলার তিনটি রুমে ভাংচুর চালায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

জানা যায়, বঙ্গবন্ধু হলের ডাইনিংয়ে খাবার নেয়াকে কেন্দ্র করে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থী বিপুলের সাথে রসায়ন বিভাগের ৭ম ব্যাচের শিক্ষার্থী আল আমীনের মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। পরে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে ২ ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে ছাত্রলীগ নেতারা। এঘটনার জের ধরে সোমবার বিকেল ৩ টার দিকে শহীদ মুখতার ইলাইহী হল থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ বেড়িয়ে বঙ্গবন্ধু হলে প্রবেশ করে ছাত্রলীগের বেশ কিছু নেতাকর্মী। এসময় তারা অকথ্য ভাষায় গালাগাল দিতে থাকে।

এর কিছুক্ষণ পর বঙ্গবন্ধু হল থেকেও ছাত্রলীগের আরেকটি গ্রুপের বেশ কিছু নেতাকর্মী দেশীয় অস্ত্রসহ হলের নিচে জমায়েত হয়। সেখানে দুই গ্রুপের মধ্যে কয়েকদফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এর কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলে আসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আবু কালাম মো. ফরিদ উল ইসলাম ও বঙ্গবন্ধু হলের প্রভোস্ট তাবিউর রহমান প্রধান।

তাদের উপস্থিতিতে ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ বঙ্গবন্ধু হলে প্রবেশ করে। অপর গ্রুপটি শহীদ মুখতার ইলাইহী হলে যাওয়ার আগে বঙ্গবন্ধু হলের তিনটি কক্ষের বাহিরের অংশ ভাংচুর চালায়। এর কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থলে আসেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক নোবেল শেখ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে নোবেল শেখ বলেন, এটি রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব নয়। সিনিয়র-জুনিয়র কেন্দ্রিক কোন্দল।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আবু কালাম মো. ফরিদ উল ইসলাম বলেন, তুচ্ছবিষয়কে কেন্দ্র করে ছাত্রদের দুটি পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

এই বিভাগের আরও খবর

আজকের প্রশ্ন

কিছু সহিংসতা ও অনিয়ম হলেও সামগ্রিকভাবে ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে—সিইসির এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি একমত?