সোমবার, ২৩ জুলাই ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:৫৫:৩১

৮ হাজার জামাইকে নাচালেন অপু বিশ্বাস

৮ হাজার জামাইকে নাচালেন অপু বিশ্বাস

জয়পুরহাট: জয়পুরহাটের কালাইয়ে পহেলা বৈশাখে জমে ওঠে জামাই মেলা। নববর্ষ উপলক্ষে ৬ মাস সময় নিয়ে এ মেলার আয়োজন করেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আ.ন.ম শওকত হাবিব তালুকদার লজিক।
শনিবার (১৪ এপ্রিল) মেলায় যোগ দেন এই এলাকারই মেয়ে জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস। উপস্থিত ছিলেন আট হাজার জামাই ও ৮ হাজার মেয়ে। এই মেলায় মঞ্চে নাচে-গানে অপু বিশ্বাস মাতিয়ে তোলেন হাজার হাজার ভক্তসহ এলাকাবাসীদের।   
মেলার আয়োজকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কালাই উপজেলার মাত্রাই ইউনিয়নে সকল সম্প্রদায়ের লোকজনের সমন্বয়ে প্রায় ৫৮ হাজার লোকের বসবাস। এ ইউনিয়নের বসবাসরত সকল ধর্মের পরিবার থেকে প্রায় ৮ হাজার মেয়ের ইতোমধ্যে বিয়ে হয়েছে দেশের বিভিন্ন জেলাতে। তাদেরকে সঙ্গে নিয়ে পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষে মাত্রাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গত ৬ মাস ধরে এলাকাবাসীর সঙ্গে আলোচনা করে তাদের পরামর্শ অনুযায়ী স্থানীয় মাত্রাই উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজন করেন এই জামাই-মেয়ের মেলা।
মেলাতে জামাইদের সঙ্গে মেয়ে এবং তাদের নিকট আত্মীয়স্বজনদের অংশগ্রহণ করাতে চেয়ারম্যান ৯টি ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যদের মাধ্যমে গত ২ মাস ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে সকল জামাইদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে দাওয়াত করে আসেন। এমনকি যারা বিদেশে থাকেন তাদেরকেও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দাওয়াত দেন তিনি।
কালাইয়ে পহেলা বৈশাখে দাওয়াত পেয়ে শনিবার সকালে জামাই-মেয়ে ও আত্মীয়রা মাত্রাই উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপস্থিত হয়ে মঙ্গল শোভাযাত্রায় যোগ দেন।তাদের আনন্দ দিতে বিদ্যালয় মাঠে আয়োজন করা হয় গ্রামীন মেলার। বসানো হয়েছে লোক কাহিনী নির্ভর কেচ্ছার আসর, পুঁথিপাঠের আসর, বাউল গানের দল, সাপুরের সাপ খেলা, লাঠি খেলা, বায়োস্কোপ, বউচি খেলা, উপজাতীদের নাচ-গান। এছাড়া জামাইদের বসার স্থানের জন্য আলাদাভাবে ইউনিয়নটির ৯টি ওয়ার্ডের নামে বিভিন্ন ভেন্যু তৈরি করাও হয়েছিলো।
এলাকার প্রথা অনুযায়ী প্রত্যেক জামাইয়ের জন্য একটি করে লুঙ্গি, গেঞ্জি ও গামছা উপহার দেওয়া হয়। তাদের খাবারের জন্য কাঁচা মরিচ ও পেঁয়াজসহ ২৫ মণ চালের পান্তা, ২০ মণ ইলিশ মাছ এবং ৪০ মণ আলু ভর্তা করা হয়।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?