বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯, ০৭:০২:২২

নেহা কক্করের হাসির ভঙ্গি দেখতে অন্তর্জালে ভিড়!

নেহা কক্করের হাসির ভঙ্গি দেখতে অন্তর্জালে ভিড়!

বিনোদন ডেস্ক : বর্তমানে বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নেহা কক্কর। তাঁর গান মানেই সুপারহিট। একের পর এক হিট গান দিয়ে আলোচনার কেন্দ্রে এ শিল্পী। তাঁর গায়কী, নাচ, সদা হাস্যোজ্জ্বল মুখ ভক্তমনে কাঁপন ধরায়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও তুমুল জনপ্রিয় নেহা কক্কর। ছবি ও ভিডিও শেয়ারের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে তাঁর অনুসরণকারীর সংখ্যা ২৫.৮ মিলিয়ন। তাঁর যেকোনো ছবি বা ভিডিও প্রকাশমাত্রই ভাইরাল। এবারও তাই হলো।

ইন্ডিয়ান আইডল ভারতের ছোটপর্দায় গানভিত্তিক অন্যতম পুরোনো ও জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো। ১০টি মৌসুম সফলভাবে শেষ করার পর নির্মাতারা ১১তম মৌসুম শুরুর প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। একদল প্রতিভাবান গায়ক ও বিচারকের দল নিয়ে অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হবে। ২৫ আগস্টের মধ্যে অংশগ্রহণকারীদের আবেদন জমা দিতে হবে।

এবারের আসরেও বিচারকের আসনে থাকছেন নেহা কক্কর। এর আগে গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, এবার নেহার স্থলাভিষিক্ত হবেন নীতি মোহন। কিন্তু কয়েক দিন আগে ‘ও সাকি সাকি’খ্যাত নেহা এ সংবাদকে স্রেফ তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়েছেন।

এবার ‘জজ সাহেবা’ তাঁর ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে নতুন একটি ভিডিও যুক্ত করেছেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে, গত আসরে বিচারকের আসনে বসা নেহার হাসির নানা ভঙ্গি। নেপথ্যে বাজছে ‘ইতনি সি হাসি, ইতনি সি খুশি’ গানটি। ভিডিওটি শেয়ার করে গত মৌসুমের হাস্যোজ্জ্বল দিনগুলো স্মরণ করেছেন নেহা। আর তাঁর হাসিমাখা মুখখানা আরেকবার দেখতে ইনস্টাগ্রামে ভিড় জমেছে। এরই মধ্যে ভিডিওটি দেখা হয়েছে ১৪ লাখ ৮৭ হাজারের বেশিবার।

গতবারের আসরটি দর্শকপ্রিয়তা পাওয়ার অন্যতম কারণ নেহা কক্কর, যিনি একজন প্রতিযোগীর জীবনকাহিনী শুনে চিৎকার করে কেঁদে কৌতুকের বিষয়ে পরিণত হন। শুধু তা-ই নয়, এ প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগী হিসেবে প্রবেশ করে বিচারকে পরিণত হওয়া একমাত্র ব্যক্তি নেহা। গায়ক বিশাল দাদলানি এ আসরেও নেহাকে সঙ্গ দেবেন।

গত মঙ্গলবার ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে এবারের আসরেও বিচারক হিসেবে থাকার কথা নিশ্চিত করেছেন নেহা কক্কর। ভক্তদের সীমাহীন ভালোবাসাই তাঁকে আবারও বিচারকের আসনে ফিরিয়ে এনেছে বলে মন্তব্য করেন নেহা।

বলিউডে এখন তুমুল জনপ্রিয় ৩০ বছরের নেহা কক্কর। ‘লন্ডন ঠমকড়া’, ‘কর গ্যায়ি চুল’, ‘দিলবার’, ‘মানালি ট্র্যান্স’, ‘ধাতিং নাচ’, ‘কালা চশমা’, ‘আঁখ মারে’, ও’ সাকি সাকি’, ‘সরি’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় গান রয়েছে তাঁর ঝুলিতে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?