বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ২৫ আগস্ট, ২০১৯, ০১:০৯:৩৩

দাওয়াত পেলে পাকিস্তানে যাব, আগুনে ঘি শিল্পার!

দাওয়াত পেলে পাকিস্তানে যাব, আগুনে ঘি শিল্পার!

বিনোদন ডেস্ক : এবার সংগীতশিল্পী মিকা সিংয়ের পাশে দাঁড়ালেন ভারতের জনপ্রিয় টিভি অভিনয়শিল্পী শিল্পা শিন্ধে। প্রকাশ্যেই জানালেন, দাওয়াত পেলে তিনিও পাকিস্তানে যাবেন।

কিছুদিন আগে পাকিস্তানের করাচির একটি অনুষ্ঠানে গান গাওয়ায় জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী মিকা সিংকে নিষিদ্ধ করে ফেডারেশন অব ওয়েস্টার্ন ইন্ডিয়া সিনে এমপ্লয়িজ (এফডব্লিউআইসিই) ও অল ইন্ডিয়া সিনে ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন (এআইসিডব্লিউএ)। পরে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইলে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে সংগঠনগুলো।

হিন্দুস্তান টাইমস প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মুম্বাইয়ে গণমাধ্যমকর্মী ও সংগঠনটির নেতাকর্মীদের সামনে মিকা বলেন, তিনি প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে পাকিস্তানে গিয়েছিলেন, যা ভুল হয়ে গিয়েছিল। দ্বিতীয়বার আর এ ভুল হবে না।

সেই প্রসঙ্গে শিল্পা শিন্ধে বলেছেন, ‘শিল্পীদের কোনো সীমানা নেই। আমি মিকা সিংকে সম্পূর্ণভাবে সমর্থন করি। এটা খুবই দুঃখজনক যে চাপের মুখে তাঁকে ক্ষমা চাওয়ানো হয়েছে। তিনি কি কোনো অপরাধ করেছেন? তিনি একজন শিল্পী, যেকোনো স্থানে পারফর্ম করতে পারেন। কেউ তাঁর রুটি-রুজিতে হাত দিতে পারে না। যদি অভিনেতা হৃতিক রোশন, সালমান খান, শাহরুখ খান বা মিকার মতো শিল্পীরা পাকিস্তানে পারফর্ম করতে না যান, তবে কি যুদ্ধ ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বন্ধ হয়ে যাবে?’

এর আগে সংবাদ সম্মেলনে ক্ষমা চেয়ে মিকা সিং বলেন, ‘ওই অনুষ্ঠানের জন্য অনেক আগে থেকে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিলাম। ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের সিদ্ধান্তের পর আমার সেখানে যাওয়া উচিত হয়নি। আমি ফেডারেশনকে বলেছি যে আমার ভুল হয়েছে। সেই ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়েছি। এ ভুল আর হবে না। আমি ভিসা পেয়েছিলাম, তাই পাকিস্তানে গিয়েছিলাম। আপনারাও যদি ভিসা পান তো যাবেন।’

মিকার প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন শিল্পা, ভিডিওটি টুইট করেন তাঁর ভাই আশুতোষ শিন্ধে। বিগ বস ১১তম মৌসুমের বিজয়ী শিল্পা বলেন, ‘শিল্পীদের নিষিদ্ধ করা কোনো সমাধান হতে পারে না।’

‘আমাকে যদি পাকিস্তান থেকে দাওয়াত দেওয়া হয়, যদি আমাদের সরকার আমাকে অনুমতি দেয়, আমি সেখানে পারফর্ম করতে যাব। সেখানে আমার ভক্ত আছে, তাঁদের কী অপরাধ? আমি বুঝি, কেন পাকিস্তানি শিল্পীদের এখানে নিষিদ্ধ করা হয়েছে; কারণ ভারতে এরই মধ্যেই অনেক মেধাবী শিল্পী রয়েছেন। কিন্তু এর মানে এই নয় যে আমরা নুসরাত ফতেহ আলি খান শোনা বন্ধ করে দেব। পাকিস্তানে জন্মগ্রহণ করা কোনো অপরাধ হতে পারে না,’ যোগ করেন শিল্পা শিন্ধে।

শিল্পা আরো বলেন, ‘আমিও একই রকম নিষিদ্ধের মুখোমুখি হয়েছিলাম। একই রকম নরকের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছিল, আমি তাঁর (মিকা) ব্যথা বুঝতে পারছি।’ এর আগে ‘ভাবিজি ঘর পে হ্যায়’ ধারাবাহিক নিয়ে বিতর্ক হওয়ার পর শিল্পাকে নিষিদ্ধ করেছিল সিনে অ্যান্ড টিভি আর্টিস্টস অ্যাসোসিয়েশন। যদিও পরে সংগঠনটি অস্বীকার করে।

পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফের এক আত্মীয়ের মেয়ের বিয়েতে গান গাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয় মিকা সিংকে। গত ৮ আগস্ট করাচি যান মিকা এবং গান পরিবেশন করেন। এরপর এআইসিডব্লিউএ ও এফডব্লিউআইসিই নিষিদ্ধ করে তাঁকে। পরে ক্ষমা চাইলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?