বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৩:১৪:৫৪

অস্কারে যাচ্ছে ‘গাল্লি বয়’

অস্কারে যাচ্ছে ‘গাল্লি বয়’

বিনোদন ডেস্ক : চলতি বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পায় জোয়া আখতার পরিচালিত ‘গাল্লি বয়’ সিনেমা। এতে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন রণবীর সিং এবং আলিয়া ভাট। ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন কালকি কোয়েচলিন, সিদ্ধান্ত চতুর্বেদী, বিজয় রাজসহ আরো অনেকে।

র‌্যাপার ডিভাইন ও নেজির জীবনের ঘটনা অবলম্বনে তৈরি এই ছবি। ছবিটি বক্স অফিসে বেশ ভালো ব্যবসা করে। মাত্র ৮ দিনে ১০০ কোটির ক্লাবে প্রবেশ করে ছবিটি। বক্স অফিসে ভালো ব্যবসার পাশাপাশি দর্শক-সমালোচকেরও প্রশংসা পায় সিনেমাটিকে। চলতি বছরে বলিউডে অন্যতম সেরা সিনেমা হয়েছে ‘গাল্লি বয়’। ভারতে মুক্তির পরেই বার্লিন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে দেখানো হয়েছিল এই সিনেমা। এরপর চলতি বছরের মেলবোর্ন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে প্রদর্শিত হয় জোয়া আখতার পরিচালিত এই সিনেমা। এছাড়া অক্টোবরে জাপানে মুক্তি পাবে ‘গাল্লি বয়’।

এবার স্থান, কাল সীমানা ছাড়িয়ে ‘গাল্লি বয়’-এর আখ্যান পৌঁছে গেল সুদূর লস অ্যাঞ্জেলসে। ৯২তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডে শ্রেষ্ঠ আন্তর্জাতিক ফিচার ফিল্মের বিভাগে জায়গা করে নিয়েছেজোয়া আখতার পরিচালিত সিনেমাটি। ২০২০ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ৯২তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড অর্থাৎ অস্কার।

‘গাল্লি বয়’ ছাড়াও শ্রেষ্ঠ আন্তর্জাতিক ফিচার ফিল্মবিভাগে জায়গা করে নিয়েছে পৃথিবীর বিভিন্ন জায়গার বেশ কিছু সিনেমা। তাদের মধ্যে রয়েছে ইরানের ‘ফাইন্ডিং ফারিদে’, জাপানের ‘ওয়েদারিং উইদ ইউ’।

মুম্বাইয়ের ধারাভি বস্তির এক র‌্যাপ পাগল ছেলের স্বপ্নপূরণের গল্প নিয়েই চলতি বছরের ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে হলে এসেছিল ওই ছবি। রণবীর এবং আলিয়ার অসাধারণ অভিনেতা অনেক আগেই মন ছুঁয়েছিল দর্শকদের। শব্দ দিয়ে, কথা দিয়ে ধাক্কা মারা যায় শত্রুপক্ষকে, চোখে আঙুল দিয়ে সে সময় দেখিয়েছিল ওই ছবি।

‘গাল্লি বয়’-এর এই স্বীকৃতিতে উচ্ছ্বসিত ছবির কুশীলব বিজয় বর্মা। তার আশা, এই ছবি সেরার শিরোপা লাভ করবে। ছবিতে বিজয়ের অভিনীত চরিত্রের নাম মইন। শুধুমাত্র চরিত্র নয়, তার কাছে এই নামটা জীবনের অন্যতম সেরা পুরস্কার। কারণ এই ছবিতে অভিনয় করে তার জীবনটাই আমূল পাল্টে গিয়েছে। পরিচালক জোয়া আখতারের জন্য তার কোনো ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতাই যথেষ্ট নয়, বলছেন অভিনেতা বিজয় বর্মা। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?