সোমবার, ২৪ এপ্রিল ,২০১৭

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১২ জানুয়ারী, ২০১৭, ০২:০৮:৪৬

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সে বিশেষ ছাড়

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সে বিশেষ ছাড়

ঢাকা : নতুন বছর এবং বাণিজ্যমেলা উপলক্ষ্যে সারা দেশে বিভিন্ন ধরণের হোম অ্যাপ্লায়েন্সের দাম কমিয়েছে দেশি ব্রান্ডের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। এছাড়া চলমান ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের মেগা প্যাভিলিয়নে আগত ক্রেতাদের জন্য হোম অ্যাপ্লায়েন্সের উপর পাঁচ শতাংশ বিশেষ ছাড় ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

দাম কমানো হয়েছে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের আয়রন, ওয়াশিং মেশিন, কফি মেকার, ইলেকট্রিক ও মাইক্রোওয়েব ওভেন, এয়ার ফ্রায়ার, হেয়ার স্ট্রেইটনার, ইলেকট্রিক প্রেসার কুকার, ইলেকট্রিক লাঞ্চ বক্সসহ প্রায় ২০টি হোম অ্যাপ্লায়েন্সের।

ওয়ালটন সূত্রমতে, সকল শ্রেণী পেশার গ্রাহকদের চাহিদা, রুচি ও ক্রয় সক্ষমতা অনুযায়ী অসংখ্য মডেল ও আকর্ষণীয় কালারের হোম অ্যাপ্লায়েন্সস বাজারে ছাড়া হয়েছে। দেখতে আকর্ষণীয়, মানে উন্নত, দামও তুলনামূলক সাশ্রয়ী হওয়ায় দেশব্যাপী এসব পণ্যের গ্রাহকপ্রিয়তা, চাহিদা ও বিক্রি ব্যাপক বেড়েছে। সেই সঙ্গে আনুপাতিক হারে কমেছে উৎপাদন খরচসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক ব্যয়ও। এরসঙ্গে যুক্ত হয়েছে নতুন বছরের আমেজ। এই সার্বিক বিষয়গুলোই ওয়ালটন হোম এ্যাপ্লায়েন্সের মূল্য হ্রাসে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে।  

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্স বিপণন বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, নতুন বছর ও দেশের সর্ববৃহৎ বাণিজ্য মেলা উপলক্ষ্যে বিভিন্ন প্রকারের হোম অ্যাপ্লায়েন্সের দাম সর্বোচ্চ ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত কমানো হয়েছে। পাশাপাশি, বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের মেগা প্যাভিলিয়নে আগত ক্রেতা-দর্শণার্থীদের বাড়তি কিছু উপহার দিতে হোম অ্যাপ্লায়েন্সে দেয়া হচ্ছে পাঁচ শতাংশ বিশেষ ছাড়।

ওয়ালটন হোম ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যাপ্লায়েন্সের প্রোডাক্ট ম্যানেজার মো. মাশরুর হাসান বলেন, গত বছর সকল হোম অ্যাপ্লায়েন্সের চাহিদা ও বিক্রি বেড়েছে আশাতীত। এতে করে পণ্য প্রতি উৎপাদন খরচ ও আনুষঙ্গিক খরচও কমেছে। পাশাপাশি, নতুন বছর ও বাণিজ্য মেলা উপলক্ষ্যে গ্রাহকদের বিশেষ কিছু উপহার দিতে নতুন নতুন মডেলের পণ্য ছাড়ার পাশাপাশি কমানো হয়েছে দামও। এতে করে, ওয়ালটন ব্র্যান্ডের প্রতি গ্রহাকদের আকর্ষণ ও আস্থা আরো বাড়বে বলে মনে করছেন তিনি।

 

আজকের প্রশ্ন

কিছু সহিংসতা ও অনিয়ম হলেও সামগ্রিকভাবে ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে—সিইসির এই বক্তব্যের সঙ্গে আপনি একমত?