বুধবার, ১৯ জুন ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১২ জুন, ২০১৯, ১১:৪৯:১৩

টানা ৮ কার্যদিবস পর থামলো সূচকের উত্থান

টানা ৮ কার্যদিবস পর থামলো সূচকের উত্থান

শেয়ারবাজার রিপোর্ট: সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবসে  ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন লেনদেনের শুরুতে উত্থান থাকলেও ৭ মিনিট পর সেল প্রেসারে নামতে থাকে সূচক। তবে শেষ দিকে একবার ঘুঁড়ে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলেও ব্যহত হয় বাজার। এরই ধারাবাহিকতায় ৮ কার্যদিবস উত্থানের পর বাজারে কারেকশন হয়েছে। বুধবার লেনদেন শেষে সূচকের পাশাপাশি কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা কমেছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫২২ কোটি ৬৩ লাখ ৯৩ হাজার টাকা।

আজ দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৫৪৬৯ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১২৪১ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৯১৭ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৪৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১৬টির, কমেছে ১৯৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৮টির। আর দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৫২২ কোটি ৬৩ লাখ ৯৩ হাজার টাকা।

এর আগের কার্যদিবস দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৫৪৭৫ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১২৪৪ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ২০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ১৯২১ পয়েন্টে। আর ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৫৭৮ কোটি ৬৮ লাখ ৪৫ হাজার টাকা। সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৫৬ কোটি ৪ লাখ ৫২ হাজার টাকা।

এদিকে দিন শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক সিএসইএক্স ১৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১০ হাজার ১৪৫ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৫৬টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮৩টির, কমেছে ১৩৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির। আর দিন শেষে লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ১৪ লাখ ৪৪ হাজার টাকা।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?