বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২০, ০৭:৩৭:৩৮

‘ওয়ালটন পণ্য দামে কম, মানও অনেক ভালো’

‘ওয়ালটন পণ্য দামে কম, মানও অনেক ভালো’

ঢাকা : বাণিজ্য মেলায় এসেছিলাম একটি ফ্রিজ কিনতে। কিন্তু স্বপ্নেও ভাবিনি যে ফ্রিজের সঙ্গে আরো অনেক ধরনের পণ্য নিয়ে যেতে হবে। তাও আবার এক ফ্রিজের টাকা দিয়ে। এখনো আমার কাছে সব কিছু স্বপ্নই মনে হচ্ছে। আর ওয়ালটন পণ্য দামে কম, মানও অনেক ভালো।

কথাগুলো বলছিলেন ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন ফ্রিজ কিনতে আসা মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ।

চলছে ওয়ালটনের ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৫। এর আওতায় এবার ওয়ালটনের ফ্রিজ ক্রেতাদের দেয়া হচ্ছে ২০০ শতাংশ পর্যন্ত ক্যাশ ভাউচার। বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৫ এর আওতায় ফ্রিজ কিনে মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ ১০০ শতাংশ ক্যাশ ভাউচার পেয়েছেন।

তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘অনেক দিন ধরেই একটা ফ্রিজ কেনার পরিকল্পনা ছিল। বাসা থেকেও বলছিল ফ্রিজ কিনলে ওয়ালটনের ফ্রিজ কিনতে। পরে ভাবলাম, ওয়ালটনের সব থেকে ভালো ফ্রিজটাই কিনবো। কিন্তু শোরুমে যাওয়ার পরে WNI-5F3 মডেলের ফ্রিজটি পাইনি। তাই ভাবলাম মেলায় নিশ্চয়ই পাওয়া যাবে।’

কতো টাকায় ফ্রিজ কিনেছিলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি ৬৪ হাজার ৯০০ টাকায় ফ্রিজটি কিনি। তবে, অনলাইনে পেমেন্ট করার জন্য ১০ শতাংশ ছাড় পেয়েছি। তাতে দাম পড়েছে ৫৮ হাজার ৪১০ টাকা। কিন্তু আমি যে ১০০ শতাংশ ক্যাশ ভাউচার পেলাম, সেটা ৬৪ হাজার ৯০০ টাকার।’

‘বর্তমানে ওয়ালটন ফ্রিজ বিশ্বমানের। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ওয়ালটন তাদের পণ্য রপ্তানি করছে, সাথে প্রশংসাও কুড়াচ্ছে। তাই কোনো ধরনের চিন্তা ভাবনা না করেই ওয়ালটন ফ্রিজ কিনেছি’, বলেন তিনি।

শাহনেওয়াজ খুব আনন্দের সাথে বলেন, ‘আজকের এই পুরস্কার পেয়ে খুবই ভালো লাগছে। ওয়ালটন আসলে সাধ্যের মধ্যে সবটুকু সুখ দিয়ে থাকে। কারণ, ওয়ালটনের পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে পাওয়া যায়, আবার মান অন্য সব কোম্পানির তুলনায় অনেক ভালো।’

ক্যাশ ভাউচারের টাকা দিয়ে কি কি নিয়েছেন, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘একটি ডিপ ফ্রিজ, মাইক্রো ওয়েভ ওভেন, প্রেসার কুকার, গ্যাস স্টব, ফ্রাইপ্যান ২টি, সিলিং ফ্যান ২টি, ব্লেন্ডার ৩টি ও একটি এলইডি লাইট।’

উল্লেখ্য, অনলাইনে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সারা দেশে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে ওয়ালটন। এর মাধ্যমে ক্রেতার নাম, ফোন নম্বর এবং ক্রয়কৃত পণ্যের মডেল নম্বরসহ বিস্তারিত তথ্য ওয়ালটনের সার্ভারে সংরক্ষণ করা হচ্ছে। এতে ওয়ারেন্টি কার্ড হারিয়ে গেলেও গ্রাহক দেশের যেকোনো ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার থেকে সহজেই কাঙ্ক্ষিত সেবা নিতে পারছেন।

এ কার্যক্রমে ক্রেতাদের উদ্বুদ্ধ করতে ফ্রিজ বিক্রিতে ২০০ শতাংশ ক্যাশ ভাউচারসহ নিশ্চিত ক্যাশব্যাকের সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?