বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর, ২০১৯, ০৯:২৭:২০

আবরার হত্যার বিচার চেয়ে আন্দোলনে নামছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা

আবরার হত্যার বিচার চেয়ে আন্দোলনে নামছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা

ঢাকা : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে রাজধানীর বেসরকারি স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েছে।

রাজধানীর ২৫টি স্কুল-কলেজ ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম উল্লেখ করে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। শিক্ষার্থীদের কাছে শেয়ার করতে আহ্বান জানিয়েছে জাস্টিস ফর আববার গ্রুপের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর সায়েন্সল্যাব মোড়ে স্কুল-কলেজের ড্রেসে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন শুরু করা হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। এছাড়া আন্দোলনে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের যোগ দিতেও আহ্বান করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ ৭ অক্টোবর রাতে ছাত্রলীগের কতিপয় যুবকের হাতে খুন হন। বিচারহীনতার সংস্কৃতির এ দেশে যেন এই হত্যার বিচার হারিয়ে না যায়। এভাবে চলতে থাকলে আজ আবরার কাল আমি এবং পরশু হতে পারেন আপনি এই নির্মম হত্যার শিকার।

এমনকি তার ছোট ভাই আবরার ফাইয়াজের ভাষ্যমতে, ‘আজকে অতিরিক্ত এসপি কোথা থেকে সাহস পায় আমার গায়ে হাত দেয়ার? আমার ভাবিকে মারছে? নারীদের গায়ে নিষ্ঠুরভাবে আঘাত করা হয়েছে, এই চাটুকারদের কি বিচার হবে না? তিনি কালকে ২ মিনিটে জানাজা শেষ করতে বলেন কীভাবে? যেই ছাত্রলীগ মারলো তারা কেন সর্বত্র? বিচার চাই। আমি বিচার চাই। নয়তো আমাকে মেরে ফেলুন বাবা মা কষ্ট একবারে পাবে।’

বলা হয়েছে, তার ওপর হামলার প্রতিবাদ করার সময় এসেছে। আমরা প্রতিবাদ করি। এ অন্যায়ের শেষ কোথায়? আমরা জানতে চাই। ঢাকার সকল শিক্ষার্থীকে আহ্বান জানাচ্ছি স্কুল-কলেজ ড্রেস পরিধান করে ও আইডি কার্ডসহ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় সায়েন্সল্যাব মোড়ে চলে আসতে। শিক্ষার্থীদের প্ল্যাকার্ড, ব্যানার, ফেস্টুন আনতেও বলা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, শতভাগ শান্তিপূর্ণ আন্দোলন পালন করা হবে, তাই কোনো অঘটন কাম্য নয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?