শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯, ১২:০৮:১২

টাকার বিনিময়ে টেস্ট পরীক্ষায় ১৭৩ জনকে পাস করানোর অভিযোগ

টাকার বিনিময়ে টেস্ট পরীক্ষায় ১৭৩ জনকে পাস করানোর অভিযোগ

ফরিদপুর : ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার সাতৈর উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি টেস্ট পরীক্ষায় নম্বর জালিয়াতি করে টাকার বিনিময়ে ১৭৩ জনকে পাস করানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের করা আবেদনের প্রেক্ষিতে শুনানীর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আগামী ২৩ নভেম্বর দুইপক্ষকে নিয়ে সত্যতা যাচাইয়ের জন্য ইউএনও’র নির্দেশে উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা চিঠি দিয়েছে। টাকা নিয়ে গণহারে পাস করানোর ঘটনা নিয়ে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্থানীয়দের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
সাতৈর উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য জয়নাল আবেদীন, সেলিমুল হক, রাশিদা বেগম জানান, গত ৫ নভেম্বর সাতৈর স্কুলের এসএসসি টেস্ট পরীক্ষার রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়।  পরীক্ষায় অংশ নেয়া ১৮৭ জনের মধ্যে ১৭৩ জনকে পাস দেখানো হয়। পরীক্ষার পর এলাকায় গুঞ্জন ছিল যারা ফেল করবে তাদের পাস করানো হবে টাকার বিনিময়ে। রেজাল্ট প্রকাশ হবার পর অবিশ্বাস্য ফলাফলে স্কুলের বেশীর ভাগ শিক্ষক হতবাক হন। এ নিয়ে বিস্তর আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, প্রধান শিক্ষক ইয়াকুব আলী স্কুলের খন্ডকালীন অস্থায়ী শিক্ষকদের দিয়ে খাতা দেখিয়েছেন। সেই শিক্ষকেরা ৫-৭ হাজার টাকার বিনিময়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের পাস করিয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবার সুযোগ করে দিয়েছেন।

ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা জানান, স্কুল কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল কোন অস্থায়ী খন্ডকালীন শিক্ষককে দিয়ে খাতা দেখানো হবে না। যদিও প্রধান শিক্ষক সেই সিদ্ধান্ত মানেননি। খন্ডকালীন শিক্ষক ও স্কুলের করনিককে দিয়ে খাতা দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

সহকারী কমিশনার (ভুমি) শাকিলা বিনতে মতিন জানান, অভিযোগের ভিক্তিতে দুইপক্ষকে নিয়ে শুনানীর ব্যবস্থা করা হয়েছে। শুনানীর পর তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?