শনিবার, ২৪ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০১৯, ০১:২৪:৪৯

আসলে কি ঘটেছিল ফখরুল-সাইফুলের মাঝে

আসলে কি ঘটেছিল ফখরুল-সাইফুলের মাঝে

বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলামের শার্ট ধরে আছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর একটি জাতীয় শীর্ষ গণমাধ্যমে এমন একটি ছবি প্রকাশিত হয়। এরপর ওই খবর এবং কিছু ছবি ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

সময় একে অপরের সাথে বাগ্‌বিতণ্ডায় জড়ান এমন একটি খবর ছড়িয়ে পরে রাজনৈতিক অঙ্গনের সবার মুখে মুখে।

বুধবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে বগুড়া শহরতলির গোকুল এলাকায় হোটেল মম-ইনের লিফটে ঘটে যাওয়া বিএনপি মহাসচিবের এই ছবি নিয়ে কৌতূহল তৈরি হয়েছে দলের নেতাকর্মী ও স্থানীয়দের মধ্যে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বগুড়া জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁনের কোন্দল আরও বেড়েছে। লিফটের মধ্যে মহাসচিবের সামনেই সাইফুল ও চাঁন বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে পৌঁছে। তখন ফখরুল ইসলাম সভাপতি সাইফুলকে নিবৃত্ত করেন।

তবে ওই সময় ফখরুল-সাইফুলের মাঝে কোনো বাগ্‌বিতণ্ডার ঘটনা ঘটেনি। ফখরুলের উপস্থিতিতেই বিতণ্ডায় জড়িয়েছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন। মির্জা ফখরুল তাদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন। এরপরও ওই গণমাধ্যমটিও তাদের খবর সংশোধন করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানান, এতে উভয় নেতার সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়। তবে কী কারণে তাদের মধ্যে এ অবস্থার সৃষ্টি হয় সে সম্পর্কে কেউ বলতে রাজি হননি।

বুধবার রাতেই নিজের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানান জেলা বিএনপির সভাপতি সাইফুল ইসলাম। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জেলা সভাপতি বলেন, বুধবার অনলাইনে ‘বগুড়ার নেতার সঙ্গে বিতণ্ডায় মির্জা ফখরুল’ শীর্ষক খবরের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এ ধরনের ভিত্তিহীন খবর পরিবেশন করা থেকে বিরত থাকার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব একজন সম্মানিত ব্যক্তি। উনার সঙ্গে বাকবিতণ্ডার প্রশ্নই আসে না। উনাকে আমরা সবাই শ্রদ্ধা করি। উনি আমাদের অত্যন্ত শ্রদ্ধেয় ব্যক্তি। উনাকে কেন্দ্র করে যে খবর পরিবেশন করা হয়েছে তা সঠিক নয় বলে দাবি করেন বগুড়া জেলা বিএনপি সভাপতি।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?