মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮, ০৮:২৭:২১

এটিই বিশ্বের সবচেয়ে বিষাক্ত মাকড়সা!

এটিই বিশ্বের সবচেয়ে বিষাক্ত মাকড়সা!

ঢাকা : বিষাক্ত মাকড়সা বললেই আমরা ট্যারান্টুলাকেই বুঝি। তবে যত না বিষ, ট্যারান্টুলাকে এর চেয়েও বেশি ভয়ানক করে তুলেছে এর আকার-আকৃতি। বাস্তবে ট্যারান্টুলার চেয়েও বিষাক্ত মাকড়সা অনেক রয়েছে, যেগুলো নাম হয়তো আমরা জানি না। সেগুলো হচ্ছে, ট্যারান্টুলার চেয়েও বিষাক্ত বিষাক্ত হতে পারে, সে সম্পর্কে কোনও ধারণা পাওয়া যায়নি।

ইয়েলো স্যাক স্পাইডার, মিশর এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মরু অঞ্চলের ক্যামেল স্পাইডার, উত্তর আমেরিকার হোবো স্পাইডার, অস্ট্রেলিয়ার মাউস স্পাইডার, স্যান্ড স্পাইডার, ব্ল্যাক উইডো এমন অনেক প্রজাতির নাম বলা যেতে পারে, যেগুলির বিষ ট্যারান্টুলার চেয়েও মারাত্মক।

বিশ্বের সবচেয়ে বিষাক্ত মাকড়সার কথা বলতে হয়, তাহলে সেটা হল অস্ট্রেলিয়ার রেডব্যাক স্পাইডার। বিশ্বের বিষাক্ত মাকড়সার তালিকায় এর স্থান সবচেয়ে উপরে।

গবেষকদের মতে, একজন পূর্ণবয়ষ্ক মানুষকে ধরাশায়ী করতে এই মাকড়সার বিষের ১৪ হাজার ভাগের মাত্র এক ভাগই যথেষ্ট! বিষাক্ত প্রজাতির এই মাকড়সার আকৃতির বিচারে রেডব্যাক স্পাইডারের স্থান সবচেয়ে শেষে। বিষাক্ত এই মাকড়সাটি লম্বায় মাত্র ০.৪ ইঞ্চি। রেডব্যাক স্পাইডারের আকৃতি একটা দেশলাই কাঠির বারুদের অংশের মতোই। বছরে অন্তত ২-৩ বার প্রায় ২৫০টি করে ডিম পাড়ে এই রেডব্যাক স্পাইডার।

১৮৭০ সালে প্রথম রেডব্যাক স্পাইডারের সন্ধান মেলে। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া ছাড়াও নিউজিল্যান্ড, বেলজিয়ামেও এর সন্ধান পাওয়া পায়। ১৯৫৬ সালে রেডব্যাক স্পাইডারের বিষের অ্যান্টি ভেনম আবিষ্কৃত হয়েছে। এরপর থেকে এই মাকড়সার কামড়ে গুরুতর অসুস্থ হলেও মানুষের মৃত্যু খবর তেমন একটা পাওয়া যায়নি। তবে রেডব্যাক স্পাইডারের কামড়ে প্রতিষেধক দেওয়ার পরও একজন পূর্ণবয়ষ্ক মানুষ প্রায় একদিন অবচেতন করে রাখতে পারে।

সূত্রঃ জিনিউজ

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?