সোমবার, ২৬ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১৯, ১১:৪০:৪৩

উঁচু দালানে আঘাত পেয়ে বছরে মারা যায় ৬০ কোটি পাখি!

উঁচু দালানে আঘাত পেয়ে বছরে মারা যায় ৬০ কোটি পাখি!

অনলাইন ডেস্ক: সুউচ্চ ভবনের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস পরিযায়ী পাখিদের জন্য সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ শহরের তালিকায় ওপরের দিকেই রয়েছে। ছবি: বিবিসির সৌজন্যেসুউচ্চ ভবনের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস পরিযায়ী পাখিদের জন্য সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ শহরের তালিকায় ওপরের দিকেই রয়েছে। ছবি: বিবিসির সৌজন্যেনগরায়ণের কারণে প্রাকৃতিক পরিবেশ সংকুচিত হচ্ছে। হুমকিতে পড়ছে প্রাণবৈচিত্র্য। কিন্তু কতটা? কর্নেল ল্যাব অব অরনিথোলজি জানাচ্ছে চোখ কপালে তোলা এক তথ্য। গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি জানাচ্ছে, নগরের সুউচ্চ ভবনে আঘাত পেয়ে প্রতিবছর অগণিত পাখি মারা যাচ্ছে। শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই সুউচ্চ ভবনে আঘাত পেয়ে মৃত পাখির সংখ্যা বছরে ৬০ কোটি! আর হিউস্টন ও ডালাস পাখিদের জন্য রীতিমতো মৃত্যুকূপ।

গবেষণার তথ্যমতে, সুউচ্চ ভবনের কৃত্রিম আলোয় আকৃষ্ট হয়ে বহু পাখি উড়ে যায় সেদিকে। আর কাচের দেয়ালে আঘাত পেয়ে আহত হয়। এই আহত পাখিদের একটি বড় অংশই শেষ পর্যন্ত মারা যায়। এতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় পরিযায়ী পাখিরা। শরৎ ও বসন্তের সময় যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যাঞ্চল পাড়ি দিয়ে কয়েক শ কোটি পাখি কানাডা ও দক্ষিণ আমেরিকার দিকে যায়। আর এই সাময়িক অভিবাসনের সময়েই যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যাঞ্চলের নগরগুলো পাখিদের জন্য মৃত্যুকূপ হয়ে ওঠে। প্রতিবছর শুধু এই সময়েই ৫০ কোটির বেশি পাখি মারা যায়।
কর্নেল ল্যাব অব অরনিথোলজির গবেষণায় পাখিদের জন্য সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোর কথা উল্লেখ করা হয়েছে। আর শহর হিসেবে সবচেয়ে ভয়াবহ দুই শহর হচ্ছে হিউস্টন ও ডালাস। গবেষণা পত্রিকা ফ্রন্টিয়ার্স ইন ইকোলজি অ্যান্ড দ্য এনভায়রনমেন্টে গত সপ্তাহে প্রকাশিত নিবন্ধে বলা হয়, এসব অঞ্চলেই হাজার মাইল পাড়ি দিয়ে আসা পরিযায়ী পাখিরা মাত্র সেকেন্ডের ব্যবধানে কোনো সুউচ্চ ভবনে আঘাত পেয়ে মারা যেতে পারে।
গবেষক দলের প্রধান কেইল হর্টনের মতে, শিকাগো, হিউস্টন ও ডালাসের অবস্থান এমন যে এই পথ দিয়েই পরিযায়ী পাখিরা উড়ে যায়। যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যাঞ্চলের এলাকায় বেশ কয়েকটি বড় শহর রয়েছে। এসব শহরে রয়েছে অনেক উঁচু ভবন। আর এটিই পাখিদের জন্য এক বড় ঝুঁকির কারণ হয়ে উঠেছে।
প্রতিবছর ঠিক কত সংখ্যক পাখি সুউচ্চ ভবনে ধাক্কা খেয়ে মারা যাচ্ছে, তার সঠিক পরিসংখ্যান পাওয়া না গেলেও গবেষকেরা এ সংখ্যা মোটা দাগে ৬০ কোটি হতে পারে বলে জানিয়েছেন। একই বিষয়ে ২০১৪ সালে দ্য কনডর অরনিথোলজিক্যাল অ্যাপ্লিকেশনসে প্রকাশিত আরেক গবেষণাপত্রে জানানো হয়েছিল, শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই সুউচ্চ ভবনে আঘাত পেয়ে বছরে প্রায় ১০০ কোটি পাখি মারা যায়।
সুউচ্চ ভবনগুলো পাখিদের জন্য এতটা ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ার কারণ হিসেবে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের বরাত দিয়ে সিএনএন জানায়, সুউচ্চ ভবনগুলোর কাচের দেয়ালগুলোই পাখিদের সবচেয়ে বেশি বিভ্রান্ত করে। অনেক সময় কাচের দেয়ালের ভেতরে থাকে টবে রাখা গাছ, যা পাখিদের নিরাপদ অবতরণের আশ্বাস দেয়। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাকে কাচের দেয়ালে আঘাত পেয়ে প্রতারিত হতে হয়, যা এমনকি মৃত্যুর কারণ হয়ে ওঠে। উদ্যান বা বাগানের পাশে থাকা ভবনগুলোর দেয়ালে আলোক প্রতিফলনক্ষম কাচ ব্যবহার করা হয়, তাহলেও তা পাখিদের জন্য ভীষণ ঝুঁকির কারণ হয়ে ওঠে। আর কৃত্রিম আলো থেকে সৃষ্ট ঝুঁকি তো রয়েছেই।

 

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?