সোমবার, ২১ মে ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ১৬ মে, ২০১৮, ১১:০৫:৪৬

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে গ্রিন টি মহৌষধ

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে গ্রিন টি মহৌষধ

স্বাস্থ্য ডেস্ক : বহুমূত্র রোগ বা ডায়াবেটিস একটি হরমোন সংশ্লিষ্ট রোগ। দেহযন্ত্র অগ্ন্যাশয় যদি যথেষ্ট ইনসুলিন তৈরি করতে না পারে অথবা শরীর যদি উৎপন্ন ইনসুলিন ব্যবহারে ব্যর্থ হয়, তাহলে যে রোগ হয় তা হলো ডায়াবেটিস বা বহুমূত্র রোগ। তখন রক্তে চিনি বা শকর্রার উপস্থিতিজনিত অসামঞ্জস্য দেখা দেয়। ইনসুলিনের ঘাটতিই হল এ রোগের মূল কথা।

বর্তমানে বাংলাদেশে অসংখ্য মানুষ এ রোগে আক্রান্ত। অথচ ডায়াবেটিসের সবচেয়ে বড় ওষুধ দৈনন্দিন জীবনযাপনে নিয়ন্ত্রণ। অনিয়ন্ত্রিত লাইফস্টাইলই অনেকক্ষেত্রে এ রোগের কারণ হয়ে থাকে। তবে ডায়াবেটিস প্রতিরোধে আপনি চাইলে কিছু বিষয় মাথায় রাখতে পারেন।

এর মধ্যে গ্রিন টি শরীর-স্বাস্থ্যের পক্ষে খুবই উপকারী। যা ডায়াবেটিস রোগীর জন্য মহৌষধ বলা যায়। গ্রিন টি’তে কী কী উপকার আসুন জেনে নিই-

# শরীরের ফ্যাট অক্সিডেশন প্রক্রিয়াকে আরও কার্যকর করে খাবার থেকে ক্যালোরি তৈরির প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে গ্রিন টি’র পলিফেনল। ফলে দেহে অতিরিক্ত চর্বি জমতে পারে না। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, গ্রিন টি একদিনে ৭০ ক্যালোরি পর্যন্ত ফ্যাট বার্ন করতে পারে।

# রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে গ্রিন টি দারুণ কাজ করে। প্রতিদিন খাওয়ার পরে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায়। রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে গ্রিন টি প্রত্যক্ষ ভাবে সাহায্য করে। তাই এটি ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে খুবই কার্যকরী।

# গ্রিন টি হৃদরোগের ঝুঁকি কমানোর ক্ষেত্রে খুবই কার্যকরী। গ্রিন টি শরীরে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে। গ্রিন টি রক্ত জমাট বাধতে দেয় না। পাশাপাশি, গ্রিন টি শরীরের ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করতে সাহায্য করে। ফলে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার সম্ভাবনাও কমে।

# গ্রিন টি আপনার দাঁত ভালো রাখবে। কারণ, গ্রিন টি’র ‘ক্যাটেকাইন’ নামক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট মুখের ভিতরের ব্যাকটেরিয়াকে বাড়তে দেয় না। যার ফলে গলার সংক্রমণসহ দাঁতের বিভিন্ন সমস্যা কমিয়ে আনতে সাহায্য করে।

# চা পাতায় ‘থিয়ানিন’ নামের অ্যামাইনো এসিড থাকে। এই উপাদান অবসাদ কমাতে সাহায্য করে। গ্রিন টি অবসাদ বা ডিপ্রেশন দূর করতে খুবই কার্যকরী।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?