বুধবার, ২১ আগস্ট ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৮ মে, ২০১৯, ১১:১৭:৩১

রমজানে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা রোধে…

রমজানে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা রোধে…

স্বাস্থ্য ডেস্ক : রোজায় ভোররাতে সেহরী খাওয়ার পর থেকে সন্ধ্যায় ইফতারি পর্যন্ত না খেয়ে থাকতে হয়। এতে গ্যাস্টি্রকে আক্রান্তদের একটু অসুবিধা হতে পারে। তাদের সেহরি ও ইফতারের সময় স্বাস্থ্যকর খাবারে একটু নজর দিতে হবে। এমনকি কিছু খাবার আছে যেগেুলো খেলে গ্যাস্টি্রকের সমস্যা বাড়তে পারে সেগুলো পরিহার করুন। এছাড়া এই সমস্যা এড়াতে যা খাবেন-

স্ট্রবেরি – গ্যাস তাড়ানোর সবচেয়ে ভালো উপায় স্ট্রবেরি। ইফতারে ৫/৬টি স্ট্রবেরি পেটে গ্যাসজনিত অস্বস্তি বা অন্ত্রের গ্যাসযুক্ত যন্ত্রণা প্রশমিত করতে সাহায্য করে।

আপেল সাইডার ভিনেগার – এটি কেবল দাঁতের জন্যই ভালো না, স্টোমাক ব্লোটিংয়ের জন্য সেরা প্রাকৃতিক সলিউশন এটি। এক গ্লা,স উষ্ণ পানিতে দুই চা চামচ ভিনেগার মেশান। খ‍ালি পেটে খেলে পেটে গ্যাস জমবে না।

আনারস – আনারস প্রাকৃতিক উপায়ে খাদ্য ভেঙে হজম প্রক্রিয়াকে সহজ করে।

সবুজ রস – টাটকা সবুজ উপাদান- পাতা কপি, শাক, শসা, লেটুস দিয়ে তৈরি রস গ্যাস হ্রাস করে।

আরো পড়ুন:-

আদা – পেট খারাপ হলে আদার রস খাওয়া যেতে পারে। এটি পাকস্থলীকে শান্ত রাখে।

কাঁচা মধু – জনপ্রিয় ঘরোয়া সমাধান। পেটে বেশি গ্যাস হলে এক টেবিল চামচ কাঁচা মধু খান।

দারুচিনি – দারুচিনি পরিপাক প্রক্রিয়ায় চর্বি বিপাকে সাহায্য করে। ফলে শরীরের অতিরিক্ত গ্যাস অপসারণ করে।

মৌরি – পেট ও অন্ত্রের প্রদাহ কমায় এবং পুষ্টির সঠিক শোষণ নিশ্চিত করে।

পুদিনাপাতা – প্রায় সবখানেই ইফতারে এ উপাদানটির উপস্থিতি থাকে। খাবারের সঙ্গে খান বা কাঁচা পুদিনাপাতা একটু চিবিয়ে নিন। ভালো বোধ করবেন।

সেহেরিতে যা খাবেন নাঃ সেহরিতে এমন খাবার খাওয়া উচিৎ যা থেকে গ্যাসের কোনো ভয় থাকবে না।

ডিম
ডাল
খিচুরি
তেলযুক্ত খাবার
লেবু
কোল্ড ড্রিংকস
ফাস্টফুড জাতীয় খাবার
এই খাবার গুলি খুব দ্রত গ্যাস তৈরি করে।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?