শনিবার, ২৩ নভেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ০৩ জুন, ২০১৯, ১১:৫৬:৩৬

আদা রসুনে কমবে সাইনাস

আদা রসুনে কমবে সাইনাস

স্বাস্থ্য ডেস্ক : সাইনাস আসলে কোনো রোগ নয়, সাইনাস আমাদের মাথায় অবস্থিত একটি প্রকোষ্ঠ, যার কাজ ভেন্টিলেশনকে ঠিক রাখা। সেই ভেন্টিলেশনের কাজে বাধা পড়লে যে সমস্যা হয় তাকেই বলে হয় সাইনাস।

এই প্রকোষ্ঠগুলোতে বাতাস চলাচল স্বাভাবিক না থাকলে অথবা মিউকাস জমলে প্রচণ্ড ব্যথা হয়। আবার অ্যালার্জির কারণেও সাইনোসাইটিস হয়। তবে ঘরোয়া কিছু উপায়েও সাইনাসের সমস্যা কমানো সম্ভব।

সাইনাস কমাতে প্রথমেই প্রয়োজন গরম তরল খাবার। এতে নাকে জমে থাকা মিউকাস অনেক তরল হয়ে যায়। এতে দূর হয় কপালের ব্যথাও।

নাক দিয়ে গরম পানির ভেপার নেয়ার থেকে ভাল উপায় আর নেই। এই পদ্ধতিতে শ্বাসনালী পুরো পরিষ্কার হয়ে যায়। খুব তাড়াতাড়ি সাইনাসের রোগী আরাম পান।

এক চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার, হাফ চামচ হলুদ, সামান্য আদা কুঁচি, লেবু, সামান্য গোলমরিচ, তিন চার কোয়া রসুন পানিতে দিন। পানি ফুটে গেলে সেই মিশ্রণ আসতে আসতে চুমুক দিয়ে খান। এতে মধুও দিতে পারেন। সাইনাস কমাতে এটি খুব ভাল কাজ করে।

ধোঁয়া ওঠা ফুটন্ত গরম পানিতে এক-দুই ফোঁটা এসেনশিয়াল ইউক্যালিপটাস অয়েল দিয়ে সেই পানি টানুন। এই সময়ে মাথা একটা তোয়ালে দিয়ে ঢেকে নিলে পুরো বাষ্পটাই গিয়ে ধাক্কা দেবে জমে থাকা মিউকাসে।

ঘুমাতে যাওয়ার আগে এক দুই ফোঁটা ইউক্যালিপটাস তেল আঙুলে নিয়ে নাকের গোড়ায় লাগিয়ে নিন। ঘুমের সময়টুকু আরাম পাবেন।

ঘুমানোর সময় এসিতে থাকবেন না। প্রয়োজনে ঘুমের ঘণ্টা খানেক আগে এসি চালিয়ে নিয়ে ঘর ঠাণ্ডা করে তারপর ফ্যান চালিয়ে ঘুমান।

সারাদিন প্রচুর পরিমান পানি খান। এতে অ্যাসিডিটি কমানো যাবে। অ্যাসিডিটি যত কমবে ততই কমবে মিউকাস।

ক্রনিক সাইনাস থাকলে দুধজাতীয় খাবার, ময়দা, ভাজা এড়িয়ে চলতে হবে। খাবারে পিঁয়াজ, রসুন, আদা বেশি করে দিন। সাইনাসের দারুণ ঘরোয়া উপায়।

মাথা ব্যথা হলে গরম পানিতে নরম সুতির কাপড় ভিজিয়ে বার বার মাথায় দিন। কিছুটা আরাম পাবেন।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?