সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

বৃহস্পতিবার, ০৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০৭:৩৬:২৪

হাঁটু-কোমরের ব্যথা নিয়েও বেড়ানো যাবে, তবে…

হাঁটু-কোমরের ব্যথা নিয়েও বেড়ানো যাবে, তবে…

স্বাস্থ্য ডেস্ক : আজকাল হাঁটু বা কোমরের ব্যথায় অনেককেই কষ্ট পেতে দেখা যায়। এ জন্য উটকো ঝামেলা এড়িয়ে চলেন। সারাবছরই চিকিৎসকদের পরামর্শও নেন।

আবার ব্যথা বাড়লে হাঁটু-কোমরের যত্ন নেওয়া শুরু করেন। এ রকম অবস্থায় বেড়ানোর কথা তারা ভাবতেই পারেন না। অর্থোপেডিক বিশেষজ্ঞদের মত হচ্ছে, এরাও বেড়াতে যেতে পারবে তবে তাদের কিছু নিয়ম-কানুন মানতে হবে।

আধুনিক জীবন যাপনের চাপে হাঁপিয়ে উঠে অনেকেই চান কয়েকটা দিন বেড়িয়ে শরীর-মন ভাল করতে। কিন্তু পরিবারের কাউকে বাদ দিয়ে তো আর যাওয়া যায় না। তাদের জন্য আনন্দের খবর হচ্ছে, কিছু নিয়মকানুন মেনেই সঙ্গে নিয়ে যেতে পারবেন পরিবারের সবাইকে।

জানতে হবে হাঁটু বা কোমরে কেন ব্যথা হয়-

হাঁটুর ব্যথা : শরীরের পুরো ভার বহন করে হাঁটু দুটি। আর্থ্রাইটিস থাকলে এই ব্যথা স্বাভাবিক। কিন্তু অনেক সময় অসুখবিসুখ ছাড়াই এই সমস্যা ডেকে আনি আমরা। ভুল ভঙ্গিতে হাঁটাচলা, পায়ের অনুপযুক্ত জুতা পরা, শরীর চর্চা না করা ও বাড়তি ওজন কমানোর অনীহা হাঁটুর ব্যথার অন্যতম কারণ।

কোমরে ব্যথা : জীবনযাপনের কারণে এই ব্যথা বাসা বাঁধে। তুলতুলে নরম গদিতে বসে কাজ করা, গদি আঁটা চেয়ারে বসে কাজ করা, শরীর চর্চা না করা, হাঁটাহাঁটি না করা এগুলোই কোমরের ব্যথা ডেকে আনে।

এবার জেনে নেয়া যাক হাঁটু-কোমরের ব্যথা নিয়ে কী ভাবে বাড়াতে যাওয়া সম্ভব-

* বেড়াতে যাওয়ার আগে অবশ্যই সম্পূর্ণ চেকআপ করান ও চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে সচেতনতা অবলম্বন করুন।

* বেড়াতে গেলেও প্রয়োজনীয় ওষুধ, নি ও অ্যাঙ্কল ক্যাপ, বেল্ট ও চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ওষুধপত্র সঙ্গে রাখতে হবে।

* নরম সোলের জুতো, গ্রিপ ও স্ট্র্যাপ-সহ জুতা পরবেন। অবশ্যই হিল এড়াতে হবে।

* চেয়ারে বসার সময় পায়ের পাতা যেন মাটিতে ঠেকে থাকে।

* ঘরে পরার চটি যেন স্লিপারি না হয় সে খেয়াল রাখতে হবে।

* গাড়িতে কম ঝাঁকুনি হবে এমন সিটে বসান।

* উঁচু-নীচু রাস্তায় হাঁটলেও কষ্ট হতে পারে। তাই ব্যথা কমানোর স্প্রে, ওষুধ সঙ্গে রাখুন। বরফ সেঁক দেয়া সম্ভব হলে রাতে ঘুমনোর আগে আইস প্যাক দিন।

* অশান্ত সমুদ্রে নামবেন না, তবে অল্প কিছুটা নেমে আনন্দ করতে পারেন। বড় ঢেউয়ের আঘাত এড়াতে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে।

* সাবধানে হাঁটাচলা করতে হবে, তবু চোট পেলে বেদনানাশক ওষুধ ও বরফ সেঁকের আস্থা রাখুন।

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?