শনিবার, ১৮ জানুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২০, ১২:২০:৫৪

কগনেশিয়াল ইনটেনসিভিটি টু পেইন ?

কগনেশিয়াল ইনটেনসিভিটি টু পেইন ?

স্বাস্থ্য ডেস্ক : দৈনন্দিন জীবনে নানারকম দুর্ঘটনা এড়িয়ে চলি আমরা। যেমন- আগুন, বিদ্যুৎ ইত্যাদি জিনিসগুলোর ছোঁয়া থেকে খুব সতর্কতার সাথে দুরত্ব বজায় চলি। কিন্তু কেন এভাবে কিছু জিনিসকে ভয় করে চলি আমরা? কারণ সেগুলো স্পর্শ করলে আমরা কষ্ট পাব। ব্যথা লাগবে আমাদের। আর এই কষ্টের অনুভূতি আসে মস্তিষ্ক থেকে।

আগুনে হাত দিলে আমাদের হাত পুড়ে যায় আর তখন মস্তিষ্কই আমাদেরকে ব্যথার অনুভূতি জানান দেয়। কিন্তু যদি এমন হয় যে আপনার মস্তিষ্ক আপনাকে আর কোন কষ্টের অনুভূতিই দিচ্ছেনা?

ভাবছেন এরকমও আবার হয় নাকি? হয়! আর এমনটাই হয় জীনগত সমস্যা কগনেশিয়াল ইনটেনসিভিটি টু পেইন রোগে ভুগতে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে। এই রোগে আক্রান্তদের মস্তিষ্কের কিছু স্নায়ু অচল থাকে। ফলে কোন ধরনের ব্যথার অনুভূতি হয়না এদের।

ভাবছেন বেশ ভালোই তো তাহলে এমনটা হলে। কোন রকমের ব্যথার অনুভূতি হবেনা। কিন্তু না! সবসময় ভালোকিছু নয়, ভয়ংকর ঘটনাও টেনে নিয়ে আসে রোগীর জীবনে এই কগনেশিয়াল ইনটেনসিভিটি টু পেইন রোগটি। কেউ কেউ কেবল ব্যথার অনুভূতি না পেলেও এই রোগের রোগীদের অনেকের স্মৃতিশক্তি কমে যায়। শারিরীক নানারকম সমস্যা দেখা দেয় তাদের।

তবে আসল সমস্যাটি দেখা যায় অন্য জায়গায়। সামান্য ব্যাতিক্রম ছাড়া কগনেশিয়াল ইনটেনসিভিটি টু পেইনে আক্রান্ত রোগীদের ভেতরে অনেকেরই শেষ আশ্রয় হয় মৃত্যু। আর সেটাও হয় এই রোগের কারনেই।

যেহেতু তারা বুঝতে পারেনা যে তাদের শরীর আক্রান্ত হচ্ছে তাই সেদিকে মনযোগও দিতে পারেনা। নিতে পারেনা ঠিকঠাক সাবধানতা। পরে কিছু বুঝবার আগেই সবটা শেষ হয়ে যায়। ভেবে দেখুন তো এমন একটি পরিস্থিতির কথা যেখানে আপনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়েছেন অথচ কিছুই বুঝতে পারছেন না!

নিজেদের এই অসতর্কতার জন্যে সবসময়েই কাছের মানুষদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে থাকতে হয় এই রোগের রোগীদের। যারা তাদেরকে সতর্ক করে দিতে পারে। এমনিতে খুব ধারালো কিছুর স্পর্শ কিংবা ঠান্ডা আর শীত বুঝতে পারে এই রোগীদের কেউ কেউ। কিন্তু তারাও ব্যথা অনুভব করতে পারেনা।

ধরুন, আপনি রান্নাঘরে আছেন। হঠাৎ নাকে ধোঁয়া এসে লাগতেই আপনার মনে হল কিছু পুড়ছে। এবং পেছন ফিরেই আপনি দেখলেন আপনার শরীরে আগুন লেগে গিয়েছে এবং অনেকটা পুড়েও গিয়েছে, তখন আপনি কি করবেন? কগনেশিয়াল ইনটেনসিভিটি টু পেইন আক্রান্তদের অবস্থাটাও ঠিক এমনটাই হয়। তবে আশার কথা হল, সবার ভালোবাসা আর সতর্ক নজরে থাকলে এই জটিল রোগে আক্রান্ত ব্যথাহীন মানুষগুলোও ভালোভাবে বেঁচে থাকতে পারে।

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?