বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী, ২০১৮, ১০:৩৮:০৬

সালমান খানকে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা!

সালমান খানকে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা!

বিনোদন ডেস্ক : সালমান খান একজন জনপ্রিয় ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা। তিনি ইতোমধ্যেই ৮০টির বেশি হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। সালমান খান বলিউড এর সবচেয়ে বড় সুপারস্টার। তিনি বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন বিবি হো তো এহসি চলচ্চিত্রে একটি গৌণ ভূমিকায় অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে ১৯৮৮-তে। তাঁর অভিনীত প্রথম ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র ম্যায়নে পিয়ার কিয়া ১৯৮৯ সালে মুক্তি পায়; এজন্যে তিনি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ নবাগতার পুরস্কার লাভ করেন। বলিউডের সবচেয়ে বেশি ব্যবসা সফল সিনেমা তার দখলে।

নিজের জায়গা থেকে নিজেকে সুরক্ষিত ভেবেছিলেন এই জনপ্রিয় ভারতীয় অভিনেতা। তাই বহাল তবিয়তে শুটিং সারছিলেন মুম্বইয়ের স্টুডিওয়ে। আসন্ন ছবি ‘রেস ৩’-এর। তবে বিপদ যে সেখানেও ওত পেতে বসেছিল, ‘কে তা জানত?’

সোমবার সালমানের আসন্ন ছবি ‘রেস ৩’-এর শুটিং স্পটেই হামলা চালাল একদল সশস্ত্র দুষ্কৃতী। সালমানকে পিটিয়ে মারাই তাদের লক্ষ্য ছিল বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ। তবে আঁচড় লাগেনি টাইগার-এর গায়ে। বাম্পার, দেহরক্ষী ও পুলিশ মিলিয়ে প্রায় ১২ জন তাঁকে নিকটবর্তী গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে সরিয়ে আনে।

সুরক্ষার্থেই একপ্রকার গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে তাঁকে। সোশ্যাল মিডিয়া কম ব্যবহার করার নিদান দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে নিজের ‘কারেন্ট লোকেশন’-এর ছবি দেওয়া বা তার উল্লেখ না করারও উপদেশ দেওয়া হয়েছে।

গত সপ্তাহেই পাঞ্জাবের কুখ্যাত গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোই সালমানকে হত্যার হুমকি দেয়। সালমানের কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার কারণেই এই হুমকি। রাজস্থানের বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের কাছে কৃষ্ণসার হরিণ পরমপূজ্য। তাদের আরাধ্য প্রাণীকে হত্যার অপরাধে আদালতের তোয়াক্কা না করে নিজেই বলিউড স্টারের ‘প্রাণদণ্ড’ ঘোষণা করেছিল লরেন্স।

সে কথায় হরিণঘাতী টাইগার বিশেষ পাত্তা না দিলেও বাড়িয়ে দেওয়া হয় তাঁর নিরাপত্তাব্যবস্থা। মুম্বই পুলিশ আবার জানায়, শুধু রাজস্থানেই নয়, মুম্বইয়েও তিনজন তাঁর প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে।

কোনও কথা কানে না তুলেই মঙ্গলবারও ‘রেস ৩’-এর শুটিংয়ে ব্যস্ত ছিলেন ভাইজান। রোজকার মতোই। সেই শুটিং স্পটের সামনেই বিক্ষোভ ও ভাঙচুর চালায় একদল সশস্ত্র দুষ্কৃতী। তার অব্যবহিত পরেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ।

সালমান ও প্রযোজক রমেশ তৌরানিকে শুটিং বন্ধের নির্দেশ দেয়। বাড়িয়ে দেওয়া হয় সেটের নিরাপত্তাব্যবস্থা। ছয়জন পুলিশ একটি গাড়ি করে সালমানকে গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে নিয়ে যায়। তাঁর ব্যক্তিগত গাড়ি করে আবার একদল পুলিশ তাঁর বাড়ি যায়। সেখানেও নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।

দেহরক্ষী শেরা বা অন্যান্য নিরাপত্তারক্ষী ছাড়াই মাঝেমাঝে শহরের রাস্তায় ঘোরেন সালমান। কাটিয়ে নেন মনের মতো ‘মি টাইম’। অন্য সুপারস্টারের থেকে এখানেই আলাদা ভাইজান। তবে মঙ্গলবারের ঘটনার পর এইসব ঝুঁকিবহুল হাবভাব বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তাঁকে। কারণ সরষের মধে্যই ভূত দেখছে পুলিশ। ঘরের মাটিতেই ঘরের ছেলের প্রাণনাশের আশঙ্কা। গ্যাংস্টার লরেন্সের হুমকিকে তাই একেবারেই ফেলনা করে দেখছে না পুলিশ।

এই ঘটনায় লরেন্সের হাত রয়েছে কি না-তা খুঁটিয়ে দেখছে পুলিশ। আগামী দু’দিন ‘রেস ৩’ মূল নারী চরিত্রে থাকা অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজের সঙ্গে একটি নাচের দৃশ্যে শুটিং করার কথা ছিল সলমনের। শুটিং হত সংশ্লিষ্ট সেটেই। পুলিশ সেই শুটিং বন্ধ রাখার অনুরোধ করেছে প্রযোজক-সহ গোটা ইউনিটকেই। বিষয়টি নিয়ে ভাবনা-চিন্তা করছে ‘রেস ৩’-র কাস্ট অ্যান্ড ক্রু।

এই বিভাগের আরও খবর

  যুক্তরাষ্ট্রে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে চীনা নাগরিক গ্রেফতার

  উত্তপ্ত শনিবারের ‘রাজপথ’ দখল চায় দুই দলই

  দ্বিতীয় স্যাটেলাইটের জন্য চারটি স্লট চেয়েছে বাংলাদেশ

  যুক্তরাষ্ট্র ইরান ইস্যুতে ভ্রান্ত নীতি অনুসরণ করছে : রুহানি

  মুন্সীগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

  ‘সিনহার সঙ্গে বসতে অনীহার কারণ প্রকাশ পেলে দুর্গন্ধ ছড়াবে’

  ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজে ভর্তির আবেদন শুরু

  ১ অক্টোবর থেকে ‘রেডি’ হয়ে যান: নেতাকর্মীদের মওদুদ

  অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য কাজ করছে সরকার

  পাঁচমিশালী নেতৃত্বে জনগণের আস্থা নেই: কাদের

  রুশ বিমান বিধ্বস্ত করার দায় এবার ইরানের ওপর চাপাল যুক্তরাষ্ট্র



আজকের প্রশ্ন