মঙ্গলবার, ১৯ জুন ,২০১৮

Bangla Version
SHARE

সোমবার, ০৪ জুন, ২০১৮, ১০:১৬:২৩

প্রেম শেষ মানেই বন্ধুত্ব শেষ নয়, দেখালেন তারা

প্রেম শেষ মানেই বন্ধুত্ব শেষ নয়, দেখালেন তারা

লাইফস্টাইল ডেস্ক : একটা সম্পর্ক যখন গড়ে ওঠে নিজের অজান্তেই, আবার সেই সম্পর্কের মধ্যে আরও অনেক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। হয়তো দুজনের মধ্যে আর প্রেমের সম্পর্ক নেই। কিন্তু তা বলে কী একে অপরের মুখ দেখা বন্ধ হয়ে যাবে! সম্পর্কের টানাপড়েনে সবকিছুই শেষ।

কিন্তু কয়েকজন বলিউড অভিনেতা-অভিনেত্রীর মধ্য দেখা গেল ভিন্ন কিছু। তারা ভোলেননি, ব্রেকআপের পরও বন্ধুত্ব টিকিয়ে রেখেছেন।

রণবীর কাপুর-দীপিকা পাডুকোন: ব্রেকআপের পর বেশ কিছু দিন রণবীর এবং দীপিকা একে অপরের সঙ্গে কথা বলতেন না। সে খবর সামনে এসেছিল। তবে এখন তাদের সম্পর্কের সমীকরণটা পুরোপুরি বদলে গিয়েছে। দীপিকা নিজেও সেটা স্বীকার করেছেন। ‘আমরা সম্পর্কের খুঁটিনাটি বিষয়গুলো ফেলে অনেক এগিয়ে এসেছি। আমাদের বন্ধুত্বের সম্পর্ক এখন আরও অনেক গভীর’, বলেছিলেন দীপিকা।

সালমান খান-ক্যাটরিনা কইফ: দীর্ঘ পাঁচ বছরের সম্পর্ক ছিল তাদের। কখন, কী ভাবে এবং কেন যে তাদের সম্পর্কের ভাঙন ধরল তা কেউ নিশ্চিত করে বলতে পারেন না। তবে সম্পর্ক ভেঙে গেলেও তাঁরা কিন্তু এখন খুব ভাল বন্ধু। এমনকী ক্যাটরিনাকে খান-পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতেও দেখা যায়।

অানুষ্কা শর্মা-রণবীর সিংহ: ‘ব্যান্ড বাজা বারাত’ তাদের এক সঙ্গে প্রথম সিনেমা। আর এর পর থেকেই দু’জনে ডেট করতে শুরু করেন। তবে খুব বেশি দিন সে সম্পর্ক টেকেনি। দু’জনের মধ্যে যোগাযোগও ছিল না। কিন্তু তাদের দু’জনকে আরও একবার জুটি বেঁধে অভিনয় করতে দেখা যায় ‘দিল ধড়কনে দো’-তে। পুরনো সম্পর্ক ভুলে তারা এখন খুব ভাল বন্ধু।

কারিনা কাপুর-শহিদ কাপুর: পাঁচ বছরের প্রেমের সম্পর্ক ভেঙে যায়। আর তারপর দীর্ঘ সাত বছর একে অপরের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ ছিল না তাদের। ২০১৪ সালে আইফা অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে তাঁরা ফের মুখোমুখি হন। কারিনা পুরস্কার নিতে মঞ্চে ওঠেন এবং সঞ্চালক শহিদের সঙ্গে তাকে কথাও বলতে দেখা যায়।

কুশল টন্ডন-গওহর খান: বিগ বস হাউসে পরিচয় এবং প্রেম। সেখান থেকে বার হওয়ার পরও কয়েক মাস তাদের প্রেমপর্ব চলছিল। কিন্তু খুব খারাপ ভাবে ব্রেকআপ হয়। সে সময় একে অপরের প্রতি প্রকাশ্যে তারা ভীষণ কাদা ছোড়াছুড়ি করতেন। সেগুলো সবটাই সম্পর্ক নিয়ে জমে থাকা নেগেটিভ চিন্তার বহিঃপ্রকাশ ছিল। বর্তমানে তারা সেই খারাপ দিকগুলো কাটিয়ে উঠেছেন।

শিল্পা শেঠি-অক্ষয় কুমার: এদেরও খুব খারাপ অতীত রয়েছে। কেউ ভাবতে পারেননি যে, তারা ফের কখনও কাছাকাছি আসতে পারেন। কিন্তু সবাইকে ভুল প্রমাণ করেন তারা। একটি টেলিভিশন শো-এর বিচারক ছিলেন শিল্পা। সেই শো-তে অতিথি হিসাবে এসেছিলেন অক্ষয়। দু’জনকেই একে অপরের সঙ্গে ভীষণ স্বচ্ছন্দ ছিলেন।



আজকের প্রশ্ন