শনিবার, ২৫ মে ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৪ মে, ২০১৯, ০৫:২৫:৫৮

প্রথম দিনের দেখায় যেগুলো করবেন না

প্রথম দিনের দেখায় যেগুলো করবেন না

লাইফস্টাইল ডেস্ক : প্রথমদিন পছন্দের মানুষের সঙ্গে বেরোনোর সময় কিছু কাজ করবেন না। কারণ এ কাজগুলোতে সম্পর্ক খুব বেশি আগাবে না। তাই প্রথম দিন ডেটিংয়ে গেলে এগুলো সম্পর্কে আগেই জেনে রাখা ভালো-

নিজের পুরোনো সম্পর্ক নিয়ে কথা বলবেন না
ডেটের প্রথম দিনে তো নয়ই, পারতপক্ষে নিজের পুরোনো সম্পর্ক নিয়ে কখনওই কথা না বলা ভালো। একান্ত প্রসঙ্গ না উঠলে প্রাক্তনকে নিয়ে কোনও কথা নয়। আপনার সঙ্গী যদি বিশেষ করে জানতে চান, তা হলে যতটুকু না বললে নয়, ঠিক ততটুকুই বলুন।

পৌঁছোতে দেরি করবেন না
উলটোদিকের মানুষটিকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করিয়ে রাখাটা কোনও কাজের কাজ নয়। এমনকী, আগে থেকে ফোনে দেরি হবে জানিয়ে দেওয়াটাও একইরকম অবাঞ্ছনীয়। এতে মনে হয়, ডেটের ব্যাপারে আপনি তত আগ্রহী নন।

অতিরিক্ত অ্যালকোহল খেয়ে আউট হয়ে যাবেন না
পারস্পরিক আড়ষ্টতা কাটাতে কিঞ্চিত অ্যালকোহল পান বেশ ভালো উপায়, কিন্তু সংযম বজায় রাখুন। একের পর এক পেগ খেয়ে আউট হবেন না। নিজের সীমার মধ্যে থাকুন।

সারাক্ষণ ফোন দেখবেন না
কথাবার্তার মাঝে একটা ফোন কল, দুটো মেসেজ চলতে পারে। কিন্তু ডেটিংয়ের পুরো সময়টাই আপনি ফোনের দিকে তাকিয়ে কাটিয়ে দিলেন, এমনটা চলবে না। তাতে মনে হবে, ডেটের চেয়ে ফোনের ব্যাপারেই আপনি বেশি আগ্রহী। দরকার হলে ফোনটা ব্যাগে ঢুকিয়ে রাখুন।

নিজের মতে অনড় থাকবেন না
আপনি কোনও বিশেষ মতাদর্শে বিশ্বাসী হতেই পারেন, কিন্তু সারা সন্ধে তাই নিয়ে কচকচি চালানোর মানে নেই। নানা বিষয়ে কথা বলুন, কোনও একটা বিষয়ে আটকে থাকবেন না।

মুখ বুজে থাকবেন না
যত কথা সব উলটোদিকের মানুষটিই বলছেন আর আপনি হুঁ হাঁ করে চালিয়ে যাচ্ছেন, এমন হলে আপনারা দু’জনেই সময় নষ্ট করছেন। নিজের পছন্দ-অপছন্দ স্পষ্ট করে জানান, মন খুলে কথা বলুন, তাতে দু’জনেই দু’জনকে বুঝতে পারবেন।

বিল মেটানোর দায়িত্ব ওঁর উপর ছেড়ে দেবেন না
সময় পালটেছে। রেস্তোরাঁর বিল পুরুষটি মেটাবেন, এমন ধারণাও এখন অতীত। তাই প্রথমদিন নিজে বিল মেটানোর প্রস্তাব দিন। উনি বিল মেটানোর জন্য খুব জোরাজুরি করলে আপত্তি করবেন না, তবে পরের সাক্ষাতের বিলটা আপনি দেবেন, এমন কড়ার করে নিন। তাতে দু’জনেই সমান অবস্থানে থাকবেন, আর একবার দেখা হওয়ার রাস্তাও খোলা থাকবে।

খুব ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করবেন না
শারীরিক স্পর্শ এড়িয়ে চলুন। প্রত্যেক মানুষই নিজস্ব কিছু সীমা মেনে চলেন, সেটা আপনিও মেনে চলুন। বরং গল্প করুন, সময়টা উপভোগ করুন।

ম্যানার্স বজায় রাখুন
প্রাথমিক টেবিল ম্যানার্স তো বটেই, অন্য সব কিছুতেই ভদ্রোচিত আচরণ করুন। সবার সঙ্গে নম্রভাবে কথা বলুন, এমনকী রেস্তোরাঁর ওয়েটারদের সঙ্গেও রুঢ় আচরণ একেবারেই চলবে না।



আজকের প্রশ্ন