রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ০৯ জুন, ২০১৯, ১১:০৫:৪০

২ বছরে ৫ লাখ রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নেবে মিয়ানমার!

২ বছরে ৫ লাখ রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নেবে মিয়ানমার!

ঢাকা: আগামী দুই বছরের মধ্যে বাংলাদেশে থাকা ৫ লাখ রোহিঙ্গা মুসলিমকে ফিরিয়ে নেবে মিয়ানমার।  আসিয়ানের ‘ইমার্জেন্সি রেসপন্স অ্যান্ড অ্যাসেসমেন্ট টিম’-এর তৈরি করা এ সস্পর্কিত একটি রিপোর্ট ফাঁস হয়ে গেলে বিষয়টি জানা যায়।  এএফপির হাতে আসা ওই রিপোর্টে আশা প্রকাশ করা হয়েছে শীগ্রই মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিবে। সেই সাথে ওই রিপোর্টে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় মিয়ানমারের চলমান পদক্ষেপ নিয়ে প্রশংসা করা হয়েছে। শিগগিরই রিপোর্টটি জনসম্মুখে প্রকাশ করার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।
মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর রাখাইনে পূর্ব-পরিকল্পিত ও কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা, হত্যা-ধর্ষণ ও নিপীড়নের কাছ থেকে বাঁচতে নতুন করে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রায় সাড়ে ৭ লাখ নারী-পুরুষ ও শিশু। এদের সাথে যুব্ত হয়েছে নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচাতে ১৯৮২ সাল থেকে ক্রমাগত  বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেয়া আরও প্রয় ৩ লাখ রোহিঙ্গা। সব মিলে বাংলাদেশে থাকা রোহিঙ্গার সংখ্যা ১০ লাখেরও বেশি। এএফপি তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, মিয়ানমার সরকারের কাছে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সংখ্যা ৫ লাখ, যা বাংলাদেশ এবং জাতিসংঘের হিসাবের চেয়ে অনেক কম।
‘প্রিলিমিনারি নিডস অ্যাসেসমেন্ট ফর রিপেট্রিয়েশন ইন রাখাইন স্টেট, মিয়ানমার’ শিরোনামে প্রণীত রিপোর্টে ৫ লাখ রোহিঙ্গার প্রত্যাবাসন নিয়ে কাজ করার কথা উঠে এসেছে।  ৮২-তে প্রণীত নাগরিকত্ব আইনে পরিচয়হীনতার কাল শুরু হয় রোহিঙ্গাদের। এএফপি আরও জানিয়েছে, আসিয়ানের রিপোর্টেও মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় কর্তৃপক্ষের মতো করে ‘রোহিঙ্গা’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়নি। তাদের পরিচয় হিসেবে সেখানে ‘মুসলমান’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নিতে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে গত বছরের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ-মিয়ানমার প্রত্যাবাসন চুক্তি সম্পন্ন হয়। গত ৬ই জুন নেপি’ডতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে মিয়ানমার ও জাতিসংঘের সংস্থাগুলোর মধ্যেও সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। তবে নানা জটিলতায় এখনও প্রত্যাবাসন চুক্তির আওতায় একজন রোহিঙ্গাকেও ফেরাত নেয়নি মিয়ানমার। আসিয়ানের রিপোর্টকে উদ্ধৃত করে এএফপি আরো জানিয়েছে, স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে কাজ করা হলে ৫ লাখ রোহিঙ্গার প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া শেষ করতে প্রায় দুই বছরের মতো সময় লাগবে।

এই বিভাগের আরও খবর

  টেকনাফে `বন্দুকযুদ্ধে' রোহিঙ্গা দম্পতি নিহত

  চুয়াডাঙ্গায় জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা

  রহস্যময় মারণ রোগের আক্রমণ, বিশ্বে ৮ কোটি লোকের মৃত্যুর আশংকা!

  বিশ্ব নদী দিবসে নানা কর্মসূচি গ্রহণ

  প্রশাসনের অংশগ্রহণ ও যোগসাজশ ছাড়া দুর্বৃত্তায়ন সম্ভব নয়: টিআইবি

  দলের ভাবমূর্তি উদ্ধারে আগাছা-পরগাছা দূর করা হবে: কাদের

  দুর্ণীতির দায় নিয়ে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল

  শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে বশেমুরবিপ্রবি’র সহকারী প্রক্টরের পদত্যাগের ঘোষণা

  অভিযান নিয়ে যা বলছেন ১৪ দলের নেতারা

  বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় রক্তাক্ত, সহকারী প্রক্টরের পদত্যাগ

  অবৈধ সরকারের থলের কালো বিড়াল বেরিয়ে আসছে: মোশাররফ



আজকের প্রশ্ন