শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ০৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ০১:০১:০৪

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে অস্ত্রের মুখে গণধর্ষণ

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে অস্ত্রের মুখে গণধর্ষণ

ঢাকা: খুলনার দাকোপে অস্ত্রের মুখে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ। ভোলার মনপুরা কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। বরিশালে ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষণচেষ্টায় শেবামেকের বাবুর্চি গ্রেফতার হয়েছে। ব্যুরো ও প্রতিনিধির পাঠানো খবর-

খুলনা : খুলনার দাকোপে শুক্রবার গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন ১৯ বছর বয়সী এক গৃহবধূ। গৃহবধূকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে গৃহবধূর শাশুড়ি জানান, তার ছেলে একটি মামলায় জেলে রয়েছে। তিনি ও তার স্বামী শুক্রবার সকালে বাড়ির বাইরে গিয়েছিলেন। এ সময় তার পুত্রবধূ একাই বাড়িতে ছিল।
প্রতিবেশী ইবাদুল গাজীর দুই ছেলে শরীফুল গাজী, সাইফুল ও তাদের বন্ধু আবির শিকদার তার ছেলের জামিনের বিষয়ে কথা বলবে বলে পুত্রবধূর ঘরে ঢোকে। এরপর তারা ধারালো দায়ের ভয় দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। শরীফুল গাজী ও সাইফুল সম্পর্কে গৃহবধূর চাচা শ্বশুর। পুলিশ জানায়, গৃহবধূর শাশুড়ির লিখিত অভিযোগে মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

ভোলা ও মনপুরা : ভোলার মনপুরা ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিব হোসেন রনির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন একই কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রী। শনিবার ওই ছাত্রীকে পুলিশ হেফাজতে মেডিকেল টেস্টের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল নেয়া হয়। শুক্রবার রাতে মনপুরা থানায় মামলা করেন ছাত্রী। এর আগে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছেও লিখিত অভিযোগ দেন তিনি। বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে প্রভাবশালীরা। রনির বিরুদ্ধে এর আগেও সাকুচিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ রয়েছে। উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সামসুদ্দিন সাগরের প্রশ্রয়ে সে একের পর এক অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে বলে ওই ছাত্রীর অভিযোগ। তবে রনির বাবা মনপুরা সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ ছেলে নির্র্দোষ বলে দাবি করেছেন। শুক্রবার থেকেই রনি পলাতক। তার মোবাইল ফোন নম্বর বন্ধ। ছাত্রীর অভিযোগ, মনপুরা হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এলে কথা আছে বলে তাকে হাসপাতালের ছাদে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে রনি। এরপর মোবাইল ফোনে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। বাড়ি নিয়েও রনি তাকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি তার বাবা, মা ও বোনদের জানালে তারা তাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। মনপুরা থানার ওসি ফোরকান আলী জানান, তারা লিখিত অভিযোগ পেয়ে ওই ছাত্রীর বক্তব্য রেকর্ড করেন। রাকিব হোসেন রনিকে আসামি করে মামলা নেয়া হয়। রনিকে প্রশ্রয়দাতা হিসেবে অভিযুক্ত উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতিকে ফোনে পাওয়া যায়নি। উপজেলা ছাত্রলীগের সম্পাদক সুমন ফরাজি জানান, ঘটনা সত্য হলে রনির বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বরিশাল : শিশুকে (৮) ধর্ষণচেষ্টার মামলায় গ্রেফতার বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজের বাবুর্চির নাম হানিফ ওরফে নয়ন। শনিবার দুপুরে র‌্যাবের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গ্রেফতারের বিষয়টি জানা যায়।
হানিফ বরিশাল নগরীর চরের বাড়ি এলাকার মৃত আফাত উদ্দিন ফকিরের ছেলে। র‌্যাব অভিযোগকারীর বরাত দিয়ে জানায়, গ্রেফতার নয়ন ৮ বছরের ওই শিশুকে প্রায় ৩ মাস ধরে যৌন হয়রানি করে আসছিল। চকলেট ও খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে বাসায় ডেকে নিয়ে প্রায়ই ধর্ষণচেষ্টা করত নয়ন। বুধবার ৪র্থ শ্রেণির স্টাফ কোয়ার্টারের সামনের মাঠে শিশুটি খেলা করছিল। চকলেট দেয়ার প্রলোভন দিয়ে তাকে বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টা করে হানিফ। শিশুর চিৎকারে অভিভাবকরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তাকে উদ্ধার করে। পরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়।

 

এই বিভাগের আরও খবর

  রোহিঙ্গা নির্যাতন : মিয়ানমারের নিন্দা জানিয়ে ইউরোপীয় পার্লামেন্টে প্রস্তাব পাস

  সচিবালয়-র‌্যাব হেড কোয়ার্টার, সোহরাওয়ার্দী, পঙ্গু হাসপাতালসহ ১৭ প্রকল্প জি কে শামীমের হাতে

  কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে অস্ত্র-ইয়াবা, কৃষকলীগ নেতাসহ আটক ৫

  রাস্তায় মানুষ নেমে আসলে পালানোর সুযোগ পাবেন না: কর্নেল অলি

  ৬ দেহরক্ষী ও বিপুল টাকাসহ যুবলীগ নেতা জি কে শামীম আটক

  নিজেরাই নিজেদের দুর্নীতির প্রমাণ করছে আওয়ামী লীগ: ফখরুল

  ঠাকুরগাঁওয়ে বাংলাদেশি যুবককে ধরে নিয়ে হত্যা করলো বিএসএফ

  বিএনপির আমলেই ক্যাসিনোর শুরু: কাদের

  বড়াল নদীতে ভেসে এলো ৪ লাশ

  চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় মা-ছেলে নিহত

  ‘সরকার সব জানতো, পুলিশ সব জানতো- এতদিন কিছু করেনি কেন?’



আজকের প্রশ্ন