রবিবার, ২৯ মার্চ ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৭ মার্চ, ২০২০, ০৭:০২:৫২

কলকাতায় গোমূত্র পানের আসর বসালেন বিজেপি নেতা

কলকাতায় গোমূত্র পানের আসর বসালেন বিজেপি নেতা

নানা বিতর্কের পর করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় গোমাতার পূজা এবং গোমূত্র পানের আসর বসালেন ভারতের হিন্দ্যুত্ববাদী দল-বিজেপির এক নেতা। ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির পর এই ভাইরাস রােধে সোমবার (১৬ মার্চ) কলকাতাতেও এমন আয়োজন করা হলো।

দিল্লিতে গোমূত্র পার্টির আয়োজন করেছিল হিন্দু মহাসভা, উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের প্রধান চক্রপানি মহারাজ নিজেও। আর কলকাতার জোড়াসাঁকো এলাকার বিজেপি নেতা নারায়ণ চট্টোপাধ্যায় গোমূত্র পান করালেন অনেককে। প্রথমে ধুপ-ধুনো-ফুল-ফল-মিষ্টান্নে গোমাতার পূজা, রুটি খাইয়ে গরু এবং বাছুরের সেবা। তার পরে ঘটিতে করে গোমূত্র বিলি।

প্রকাশ্যেই স্থানীয় লোকজনের মুখে আলগোছে গোমূত্র ঢেলে দিতে দেখা গিয়েছে ওই বিজেপি নেতাকে। করোনা রোধের উপায় হিসেবে গোমাতার পূজা এবং গোমূত্র পানের ওই আসরে যাঁরা হাজির হয়েছিলেন, তাদেরও বেশ অকাতরেই গোমূত্র পান করতে দেখা গিয়েছে। ঘটনাস্থলে হাজির এক পুলিশ কনস্টেবলের হাতেও গোমূত্র ঢেলে দেন বিজেপি নেতা। হাতের তালুতে চুমুক দিয়ে তিনি তা খেয়েও নেন।

চীনে প্রথম সংক্রমণ শুরু হয় জানুয়ারিতে, এখন মরণঘাতি করোনাভাইরাস প্রকোট আকার ধরা করেছে, ছড়িয়ে বিশ্বে। এখনও ভাইরাস প্রতিকারে কোনও ভ্যাকসিন বা অ্যালোপ্যাথি আবিষ্কার করতে পারেনি বিশেষজ্ঞরা।

তবে চীনে যখন করোনা ছড়িয়ে পড়ে তখনই আজগুবি ও ভ্রান্ত্র মতবাদ ছড়ায় ভারতের উগ্র হিন্দুরা। ভারতের রাজনৈতিক দল হিন্দু মহাসভার প্রেসিডেন্ট স্বামী চক্রপানি মহারাজ দাবি করেন করোনা রুখতে একমাত্র ‘মহৌষধি’ হল গোমূত্র।

করোনার কোনও প্রতিষেধক যেহেতু এখনও আবিষ্কার হয়নি, সে হেতু গোমূত্র পানই বাঁচার একমাত্র উপায়— জোর গলায় বললেন সেই বিজেপি নেতা। তবে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব জানালেন, ওই কর্মসূচির সঙ্গে দলের কোনও যোগ নেই।

 



আজকের প্রশ্ন