মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

রবিবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০১৮, ১২:০৮:৩২

মোবাইলে ব্যালিস্টিক মিসাইল হামলার বার্তা, যুক্তরাষ্ট্রে আতঙ্ক

মোবাইলে ব্যালিস্টিক মিসাইল হামলার বার্তা, যুক্তরাষ্ট্রে আতঙ্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই প্রদেশে জনগণের মোবাইলে ব্যালিস্টিক মিসাইল আক্রমণের একটি জরুরি সতর্কবার্তা পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীরা যে বার্তাটি পেয়েছে সেটাতে হাওয়াইয়ে ব্যালিস্টিক হামলার হুমকির কথা উল্লেখ করে নাগরিকদেরকে জরুরি ভিত্তিতে আশ্রয় খোঁজার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এটা কোনো কসরত নয় বলেও বার্তায় উল্লেখ করা হয়েছে।

দেশটির স্থানীয় সময় শনিবার সকালে মোবাইলে এই সতর্কবার্তাটি পাওয়ার পর মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর বিবিসি ও সিএনএন।

তবে, শিফট পরিবর্তনের সময় ভুল বাটনে চাপ দেয়ার কারণে ওই সতর্কবার্তাটি মোবাইলে চলে গেছে বলে জানিয়েছেন হাওয়াইয়ের গভর্নর ডেভিড ইগ। বিষয়টিকে দুঃখজনক উল্লেখ করে এর জন্যে জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন হাওয়াইর গভর্নর। এ ঘটনার পূর্ণ তদন্তের ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন সরকার।

মোবাইলে এই ব্যালিস্টিক মিসাইল হামলার বার্তাটি পাওয়ার পরের ঘটনা বর্ণনা দিয়ে একটি হোটেলে অবস্থান করা আজবেল জানান, এ সংবাদের পর আজবেল এবং তার বয়ফ্রেন্ড ও হোটেলটির শতাধিক গেস্টকে হোটেলের স্টাফরা বেজমেন্টে গরুর মতো সাজিয়ে রাখে। ওই সময় মানুষ কাঁদছে। স্পষ্টতই মানুষ তখন আতঙ্কিত ছিল। আজবেল জানান, সর্বশেষ সংবাদ জানার জন্য তারা ২০ মিনিট অপেক্ষা করেন। এরপর তাদেরকে জানানো হয় যে বার্তাটি একটি ভুয়া সংবাদ।

এ ঘটনায় মার্কিন নাগরিক ও ভিজিটররা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়ার মধ্যে দিন দিন উত্তেজনা বাড়ছে। দুই দেশের নেতার মুখ থেকেই যুদ্ধের প্রতিধ্বনি বের হচ্ছে। মোবাইল বার্তার এই হুমকি তাদের মনে যুদ্ধের অতিরিক্ত বিশ্বাসযোগ্যতা জন্ম দিবে। তারা বলছেন, এঘটনায় তারা আতঙ্কিত ছিল।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা উপক্ষো করে উত্তর কোরিয়া তাদের পারমাণবিক কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে। এরই মধ্যে দেশটি ঘোষণা দিয়েছে, তাদের কাছে যে ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে তা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যে কোনো স্থানে আঘাত আনতে সক্ষম।

আজকের প্রশ্ন

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন ‘খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে বিএনপির নেতারা মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি করছে। আপনিও কি তাই মনে করেন?