মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ,২০১৯

Bangla Version
  
SHARE

মঙ্গলবার, ১৩ আগস্ট, ২০১৯, ১০:১০:৪০

ভারতে বন্যায় ১৪৭ জনের মৃত্যু

ভারতে বন্যায় ১৪৭ জনের মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক: ভারতের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৪৭ জনে পৌঁছেছে। লাখ লাখ মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়েছে।

ভারী বৃষ্টির পর বন্যা ও ভূমিধসের কারণে কর্নাটক, কেরালা ও মহারাষ্ট্রের লাখ লাখ মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়ে আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে বাধ্য হয়েছে।

জরুরি বিভাগের কর্মীরা পানিবন্দি লাখ লাখ মানুষকে উদ্ধারে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। খবর রয়টার্সের।

রোববার পর্যন্ত কেবল কেরালাতেই বৃষ্টিজনিত দুর্ঘটনা, বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে এক লাখ ৬৫ হাজারেরও বেশি মানুষকে।

কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানিয়েছেন, অনেক বাড়িঘর এখনও ১০-১২ ফুট কাদায় ঢেকে আছে। এ পরিস্থিতিতে উদ্ধার কাজ ব্যাহত হচ্ছে।

গত বছর কেরালায় বন্যায় দুই শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়।

কর্নাটকের প্রাচীন শহর হাম্পিতে বিশ্ব ঐতিহ্যের অন্তর্ভুক্ত কয়েকটি স্থাপনাও বন্যার পানিতে ডুবে আছে।

এ দফার বৃষ্টি-বন্যায় রোববার পর্যন্ত ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা। আশ্রয় কেন্দ্রে আছেন প্রায় ২ লাখ ২৭ হাজার বাসিন্দা। আর মহারাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা ৩০ ছাড়িয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত অনেক এলাকার রেল যোগাযোগ চালু করতে সপ্তাহ দুয়েক সময় লাগতে পারে বলেও কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এবছর আসাম, বিহার ও গুজরাতের অনেক এলাকা বন্যার পানিতে ডুবে গেছে।

 

 

এই বিভাগের আরও খবর

  বেকায়দায় ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু

  কানাডায় আবারও জাস্টিন ট্রুডোর জয়

  কে হচ্ছেন কানাডার নতুন প্রধানমন্ত্রী !

  মতপার্থক্য নিরসনে সৌদি সফরে যেতে প্রস্তুত জারিফ

  পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের পর গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেবে তুরস্ক

  যে কারণে খেতাব হারালেন থাইল্যান্ডের ‘রাজপত্নী’

  রোহিঙ্গ সমস্যা সু চিকে স্মরণ করিয়ে দিলেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী

  পাকিস্তানের কাছে মাথাপিছু বিশ ডলারের ফাঁদে ভারত

  জম্মু-কাশ্মীরের নেতা ফারুক আবদুল্লার পাশে থাকার আশ্বাস মমতার

  শব্দের চেয়েও দ্রুত হাইপারসনিক ক্ষেপনাস্ত্র তৈরির পথে ভারত

  ‘শয়তানের সঙ্গে বিন সালমানের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে’

আজকের প্রশ্ন

বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, পুলিশের ওপর নির্বাচন কমিশনের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। আপনিও কি তা-ই মনে করেন?