শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১০:০৪:৫৯

ভারতে আবারও ধর্ষণের পর নারীকে পুড়িয়ে হত্যা

ভারতে আবারও ধর্ষণের পর নারীকে পুড়িয়ে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যে গণধর্ষণের পর এক নারী পশু চিকিৎসককে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় পুরো দেশ যখন বিক্ষোভে উত্তাল তখন ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে অজ্ঞাত এক নারীর পোড়া লাশ উদ্ধার করল পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকেও ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ এখনও ধর্ষণের বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত করে কিছু জানায়নি। তবে ওই নারীর গোপনাঙ্গে বেশ কিছু আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) মালদহ জেলার ধানতলা এলাকার একটি আম বাগানের কাছ থেকে ওই যুবতীর পোড়া লাশ উদ্ধার করা হয়। তবে প্রাথমিক ভাবে তার নামপরিচয় জানাতে পারেনি পুলিশ।

অনিমেষ দাস নামের ওই এলাকার এক বাসিন্দা বলেন, ‘আমরা বৃহস্পতিবার যুবতীর পোড়া লাশের সন্ধান পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় থানায় বিষয়টি জানানো হয়। পরে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।’

জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজঘোড়িয়া জানান, ওই নারীর দেহ থেকে কিছু নমুনা সংগ্রহ করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। আমরা ময়নাতদন্তের পর মৃতদেহটির পরিচয় শনাক্ত করা এবং তিনি কীভাবে মারা গেলেন তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করব।

ডেপুটি-পুলিশ সুপার প্রশান্ত দেবনাথ জানান, ওই নারীর গোপনাঙ্গে বেশ কিছু আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে মারা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

  সোলাইমানির পর কায়ানিকেও হত্যার মার্কিন হুমকি মেনে নেয়া যায় না: রাশিয়া

  রোহিঙ্গা গণহত্যা: আন্তর্জাতিক আদালতের আদেশ প্রত্যাখ্যান করল মিয়ানমার

  এবার এক ভারতীয় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

  নিখোঁজ ২০ হাজার তামিল মারা গেছে, স্বীকার করলো শ্রীলঙ্কা

  ন্যাটো জোটে এস-৪০০ ব্যবহার করবে না তুরস্ক

  উইঘুর প্রশ্নে ‘চীন ভালো বন্ধু’ বললেন ইমরান

  গজনভি ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালাল পাকিস্তান

  ‘ইরানের নতুন কমান্ডারকেও একই পরিণতি বরণ করতে হবে’

  কিয়ানিকেও সোলাইমানির ভাগ্য বরণ করতে হবে: যুক্তরাষ্ট্র

  ট্যাংকার বিমান বিধ্বস্তে ৩ মার্কিন নাগরিক নিহত

  মিয়ানমারসহ ৭ দেশের নাগরিকদের জন্য মার্কিন ভিসা নিষিদ্ধ হচ্ছে

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?