রবিবার, ১৯ জানুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

সোমবার, ১৩ জানুয়ারী, ২০২০, ১১:৩৮:৪৫

মধ্যপ্রাচ্যের সংঘাত হলে বিপর্যয় নেমে আসবে: পুতিন

মধ্যপ্রাচ্যের সংঘাত হলে বিপর্যয় নেমে আসবে: পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, মধ্যপ্রাচ্য বা পশ্চিম এশিয়ায় বড় ধরনের সামরিক সংঘাত হবে না। যদি এ ধরনের সংঘাত হয় তাহলে বিশ্বের জন্য একটা বিপর্যয়কর অবস্থা অপেক্ষা করবে।

রাজধানী মস্কোয় জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। পুতিন বলেন, এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত যুদ্ধ শুরু হলে বিপুলসংখ্যক মানুষ তাদের নিজেদের দেশ ছেড়ে শুধুমাত্র ইউরোপের দিকে পাড়ি জমাবে তাই নয় বরং অন্য অঞ্চলেও যাবে। এ অবস্থা বিবেচনা করে পুতিন এবং মার্কেল দুজনই ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা রক্ষা এবং তা বাস্তবায়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

ইরানের রাজধানী তেহরানের কাছে ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা উল্লেখ করে জার্মান চ্যান্সেলর বলেন, অনিচ্ছাকৃতভাবে যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা ইরানের পক্ষ থেকে স্বীকার করে নেয়া একটা গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। তিনি এ দুর্ঘটনাকে একটি ‘নাটকীয় ঘটনা’ বলে উল্লেখ করেন। আঞ্চলিক পরিস্থিতি নিয়ে রাশিয়া ও জার্মানি আরো আলোচনা করবে বলেও জানান মার্কেল।

সংবাদ সম্মেলনে দুই নেতা বলেন, সিরিয়ায় চলমান সংঘাত রাজনৈতিক উপায়ে নিরসন করতে হবে।

পুতিন বলেন, সিরিয়ার পুনর্গঠনে সমস্ত প্রচেষ্টায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনের দায়িত্বশীল সবারই অংশ নেয়া দরকার। এই সমস্ত প্রচেষ্টা বৈধ সরকারের সঙ্গে চুক্তি করেই চালাতে হবে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে সিরিয়ার প্রত্যেকটি অঞ্চলে কোন পূর্ব শর্ত ছাড়াই সাহায্য-সহযোগিতা দিতে হবে। সংবাদ সম্মেলনের আগে জার্মানি ও রাশিয়ার নেতা আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি নিয়ে আরো আলোচনা করেন বলে জানিয়েছেন।

জার্মান চ্যান্সেলর খুব কমই রাশিয়া সফরে আসেন। সেক্ষেত্রে অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের এই সফরকে আন্তর্জাতিকভাবে ভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে দেখা হচ্ছে। বিশ্লেষকদের অনেকেই মনে করছেন, জার্মানি ও রাশিয়ার মধ্যে সম্পর্কের ইতিবাচক উন্নতি হচ্ছে। অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের এই সফরে যেসব ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা কোনো সাধারণ বিষয় ছিল না। সে কারণে বিষয়গুলো নিয়ে আন্তর্জাতিক কোনো ভেন্যুতে আলোচনা হতে পারত। কিন্তু তা না হওয়ায় এ সফরকে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের ইতিবাচক উন্নয়নের ইঙ্গিত বলে মনে করা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  মহাকাশ দখলের পথে ইরান

  সোলাইমানি হত্যাকাণ্ড: এবার নতুন অজুহাত দেখালেন ট্রাম্প

  উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অব্যাহতি

  ইয়েমেনে হুতি বাহিনীর হামলায় ৬০ সেনা নিহত

  আপনি চিরতরে অভিশংসিত, ট্রাম্পকে পেলোসি

  কোথায়, কিভাবে আছেন ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ দাউদ ইব্রাহিম

  ৬টি আমেরিকান যুদ্ধবিমান হামলা চালাতে এসেছিল, তাই মিসাইল ছোঁড়া হয়েছে: রাশিয়া

  মিয়ানমারে চীনের প্রেসিডেন্ট, রাখাইনে হবে সমুদ্রবন্দর

  চাঞ্চল্যকর তথ্য, সেই সময় ইরান সীমান্তে উড়ছিল ৬টি মার্কিন জঙ্গি বিমান

  আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের উপর হামলা

  সোলাইমানি হত্যা: ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করবে ইরান

আজকের প্রশ্ন

ঢাকার সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হলে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আপনিও কি তাই মনে করেন?